National

আকাশে উড়বে গাড়ি, পুলিশের কব্জায় ২ ভাইয়ের অভিনব আবিষ্কার

হয়তো এ এক অনবদ্য আবিষ্কার। সেজন্য ২ ভাই তারিফটুকু হয়তো পেতে পারতেন। কিন্তু তাঁদের সেই আবিষ্কার এখন পুলিশের কব্জায়।

বাড়িতে একটা মারুতি ওয়াগন আর গাড়ি রয়েছে। সেই গাড়িকে একদম ভোল বদল করে অন্য রূপ দেওয়ার কথা আচমকাই মাথায় আসে বাড়ির ২ ছেলের। ২ ভাই মিলে বাড়ির মধ্যেই শুরু করেন তাঁদের ভাবনাকে রূপ দেওয়ার লড়াই।

তাতে তাঁরা গাড়ির পিছনে একটি লম্বা ধাতুর লেজ তৈরি করেন। যা হুবহু একটি হেলিকপ্টারের মতন। একইভাবে হেলিকপ্টারের মতই গাড়ির মাথায় হেলিকপ্টারের পাখা লাগিয়ে দেন।

ক্রমে গাড়িটি হয়ে ওঠে পাইলট ও যাত্রীদের বসার জায়গা। আর বাকিটা হেলিকপ্টারের চেহারা নেয়। এবার ছিল গাড়ি হেলিকপ্টারকে একটি সুন্দর দর্শন দেওয়া।

তাঁদের তৈরি গাড়ি হেলিকপ্টারকে রং করার জন্য এবার তাঁরা তা বাড়ির বাইরে নিয়ে আসেন। তাঁদের পরিকল্পনা ছিল রং করে সুন্দর দেখতে করে তাঁদের এই গাড়ি হেলিকপ্টারকে বিয়েতে ভাড়া দেওয়া। তাতে তাঁদের কিছু রোজগার বাড়বে। কিন্তু বাড়ির বাইরে আনতেই হয় যত বিপত্তি।


বাড়ির বাইরে সেটিকে রং করার জন্য আনতেই তা সকলের নজরে পড়ে। খবর যায় পুলিশে। উত্তরপ্রদেশের আম্বেদকর নগরের পুলিশ এসে তৎক্ষণাৎ ২ ভাইয়ের অভিনব আবিষ্কার গাড়ি হেলিকপ্টারটি বাজেয়াপ্ত করে থানায় নিয়ে যায়।

নিভে যায় এতদিনের এত আশা করে বানানো এই অভিনব যানের উড়ান সম্ভাবনা। বিষয়টি সোশ্যাল মিডিয়ায় সামনে আসতে কিন্তু নেটিজেনরা একে প্রতিভা নষ্ট করার সঙ্গে তুলনা করছেন।

এটি যদি একটি অভিনব আবিষ্কার হয় তাহলে এজন্য ওই ২ ভাইয়ের তারিফ ও সম্মান প্রাপ্য। সেখানে তাঁদের নতুন এই আবিষ্কারের জন্য শাস্তি পেতে হচ্ছে। এটা সিংহভাগ নেটিজেনই মেনে নিতে পারেননি। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button