National

৮৬ বছরের ইতিহাসের শেষ, থামল দোতলার রাজকীয় চাকা

৮৬ বছরের ইতিহাস। অনেক পরিবর্তন দেখেছে সে। কত মানুষই এল গেল। তার কোলে বসে শহরের এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্তে পৌঁছল। সেই ইতিহাসে দাঁড়ি পড়ল।

কলকাতার রাস্তায় দোতলা বাসের পথচলা শুরু হয়েছিল সেই ১৯২০ সালে। তারপর দীর্ঘ পথ অতিক্রম করে সেই যাত্রা থামে ২০০৫ সালে। কলকাতার রাস্তায় ইতিহাস হয়ে যায় ডবলডেকার। কিন্তু তখনও মুম্বই নগরীর বুকে বেস্ট-এর ডবলডেকার বাস তার যাত্রা চালিয়ে যাচ্ছিল। সেই দোতলা বাসে যাত্রীও কম হচ্ছিল না।

প্রচুর মানুষকে কোলে নিয়ে সেই রাজকীয় ডবলডেকার দিব্যি ছুটে চলছিল মায়ানগরীর রাজপথ ধরে। কিন্তু সেই ইতিহাসেই এবার ইতি পড়ল। মুম্বইতে শেষ দোতলা বাসের যাত্রা।

৮৬ বছর ধরে মু্ম্বইয়ের রাজপথে শাসন চালানোর পর শুক্রবার রাত থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্তব্ধ দোতলা বাসের পথচলা। এবার সে বেঁচে থাকবে ছবিতে। দক্ষিণ মুম্বইতে শেষ ৫টি ডবলডেকার বাস এখনও চলছিল টিমটিম করে। সেই যাত্রাও শেষ হয়ে গেল।

৮৬ বছরের বৃদ্ধ দোতলা বাস এবার অবসর নিলেও মুম্বই শহর থেকে কিন্তু দোতলা বাস হারিয়ে যাচ্ছেনা। ১৬টি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বৈদ্যুতিন দোতলা বাস চালু হচ্ছে শহরে। অবসর নেওয়া দোতলা বাস ছিল এসি ছাড়া বাস। নতুন যে বাস রাস্তায় নামছে তাতে এসি থাকছে।


মুম্বই শহরে অবশ্য দোতলা বাস প্রথম পথে নামে কলকাতায় দোতলা বাস নামার অনেকটা পরে। ১৯৩৭ সালে প্রথমবার মুম্বইয়ের মানুষ অবাক বিস্ময়ে দেখেন তাঁদের রাস্তা দিয়ে দোতলা বাস ছুটে যাচ্ছে।

শুরুতেও কলকাতা ছিল এগিয়ে। থামাতেও কলকাতাই এগিয়ে রইল। ২০০৫ সালে কলকাতা দোতলা বাসের অবসর দেখলেও মুম্বই দেখল ২০২৩ সালে এসে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button