National

বিদেশিনীর বুদ্ধিতে ধরা পড়ে গেল ভুল বুঝিয়ে পাথরের দাবার সেট বেচা ৩ ব্যক্তি

এক বিদেশিনীকে ভুল বুঝিয়ে দাবার একটি পাথরের তৈরি বোর্ড ঘুঁটির সেট বিক্রি করে দিয়েছিল তারা। কিন্তু বিদেশিনীর প্রখর বুদ্ধিতে সে জারিজুরি ধরা পড়ে গেল।

দেশ বিদেশ থেকে বহু মানুষই হাজির হচ্ছেন এখানে। ভারতের অন্যতম দ্রষ্টব্য তাজমহল দেখতে প্রতিদিনই বহু মানুষের ভিড় জমে। আর সেই পর্যটকদের বোকা বানানোর কাজ চালিয়ে যায় একশ্রেণির ঠগ।

এক বিদেশিনীও এসেছিলেন তাজমহল ঘুরে দেখতে। আগ্রায় আসার পর ওই সুইৎজারল্যান্ডের বাসিন্দা তরুণীর সঙ্গে আলাপ হয় ট্যুর গাইড হিসাবে পরিচিত জনৈক ফুরকান আলির।

তাজমহল দেখাতে নিয়ে গিয়ে ইসাবেল নামে ওই তরুণীকে ফুকরান আলি তাজমহলের পূর্ব গেট লাগোয়া একটি এম্পোরিয়ামে নিয়ে যায়। সেখানে বিক্রেতা আমির এবং দোকানের মালিক হায়দর আলি ইসাবেলক একটি পাথরের তৈরি দাবার বোর্ড ঘুঁটির সেট দেখায়।

তারা দাবি করে এটি বিরল দাবার বোর্ড। যা প্রাচীনও। দাম বলে ৮০ হাজার টাকা। ইসাবেল তা দিতে রাজি না হওয়ায় শুরু হয় দর কষাকষি।


অবশেষে সাড়ে ৩৭ হাজার টাকায় হায়দর আলি সেটটি বেচে দেয় ইসাবেলকে। ইসাবেল ক্রেডিট কার্ড দিয়ে টাকা মিটিয়েও দেন। কিন্তু তাঁর মনে একটা খটকা থেকে গিয়েছিল।

তাজমহল থেকে ফেরার সময় ইসাবেল আরও বেশ কয়েকটি দোকানে ঢোকেন। সেখানেও তিনি হুবহু এক দেখতে পাথরের দাবার বোর্ড ঘুঁটি দেখতে পান। দাম জিজ্ঞেস করে জানতে পারেন সেগুলির হাজার পাঁচেক টাকার মত দাম। বুঝতে পারেন তাঁকে কীভাবে ফুকরান, আমির ও হায়দর মিলে ঠকিয়েছে।

ইসাবেল দ্রুত পুলিশে গিয়ে বিষয়টি জানান। পুলিশ এফআইআর দায়ের করে তদন্তে নেমে ওই দোকানে হাজির হয়। সেখানকার সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করা হয়। এরপর ৩ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

সংবাদ সংস্থা আইএএনএস-কে এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, আগ্রায় এভাবে পর্যটকদের ঠকানোর প্রবণতা বেড়েই চলেছে, কিন্তু অনেক পর্যটক ঠকেও পুলিশের কাছে অভিযোগ নিয়ে আসেন না। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button