National

উৎসবের আনন্দে বিভোর মহিলাদের নজরে রাখবে শি পুলিশ

মহিলাদের ক্ষেত্রে কোনও বেচাল দেখলে এবার তাঁদের নীতি শিক্ষা দেওয়ার দায়িত্ব বর্তাল শি পুলিশের কাঁধে। তবে শি পুলিশ দেশজুড়ে এই দায়িত্ব পালন করবেনা।

উৎসবের আনন্দে গা ভাসিয়ে যাতে কোনও মহিলা বেচাল আচরণ না করেন সেদিকে এবার নজর রাখার দায়িত্ব পড়ল মহিলাদেরই ওপর। এতদিন শি পুলিশবাহিনী তৈরি করা হয়েছিল ইভটিজার ধরার জন্য। এবার সেই শি পুলিশকেই উৎসবে অন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

শি পুলিশের আধিকারিক থেকে কর্মীরা বিভিন্ন জায়গায় যেখানে উৎসবের আমেজে জমায়েত হয়েছে সেখানে হাজির থাকবেন। কড়া নজর রাখবেন সেখানে উপস্থিত মহিলাদের দিকে।

আর যদি দেখা যায় তাঁরা কোনও তথাকথিত অনৈতিক কাজ করছেন তাহলে তাঁদের নীতি শিক্ষাও দেবেন। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন শি পুলিশকর্মীরা।

গুজরাটের ভদোদরার পুলিশ কমিশনার এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন। এই শহরে ইভটিজিং নিয়ন্ত্রণে রাখতে তৈরি করা হয়েছিল মহিলাদের নিয়ে শি পুলিশ।

সেই মহিলা পুলিশদের বাহিনী শি পুলিশকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে যাতে নবরাত্রির উৎসবের মুহুর্তে মহিলাদের নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব হয়। কোনও মহিলাকে অন্যায্য কিছু করতে দেখলেই তাঁরা ব্যবস্থা নেবেন। মহিলাদের ক্ষেত্রে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণে মহিলাদের কাজে লাগানোর উদ্যোগে সায় দিয়েছেন কমিশনার।

নবরাত্রির অনুষ্ঠানে এক মহিলার ই-সিগারেট খাওয়ার দৃশ্য ছড়িয়ে পড়ার পর বিষয়টি আরও গুরুত্ব পেয়েছে। উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন ডাণ্ডিয়া নাচের অনুষ্ঠানে কাউকে সিগারেট খেতে দেখলে সুরক্ষাকর্মীরা যেন তাঁকে বার করে দেন। ফলে এবার ভদোদরার মহিলাদের উৎসবের আনন্দে কোনও পদক্ষেপ করতে গেলে মনে রাখতে হবে শি পুলিশ কিন্তু তাঁদের দেখছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button