National

পুজোয় নাচতে নাচতে মৃত যুবক, শুনে মৃত বাবা

এমন এক ঘটনা কখনওই কাম্য নয়। তায় আবার উৎসবের মধ্যগগনে। পুজোর আনন্দে নাচতে নাচতে এক যুবকের মৃত্যু তাঁর পিতার মৃত্যুরও কারণ হল।

পুজোর মধ্যে এক মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে গেল। ছেলের মৃত্যুর শোক সহ্য করতে পারলেননা বাবা। উৎসবের আনন্দ মুছে গেল। এখন কেবলই শোকস্তব্ধতা। পুলিশ ২টি মৃত্যুরই কারণ খতিয়ে দেখছে।

পশ্চিমবঙ্গে দুর্গা প্রতিমার পুজো হয়। দেশের অন্যত্র হয় দুর্গার ৯ রূপের পুজো। যাকে নবরাত্রি হিসাবে মানুষ জানেন। এই নবরাত্রির সঙ্গে জড়িয়ে আছে এক পুরাতনি সংস্কৃতি। একটি বিশেষ ধরনের নাচের সংস্কৃতি।

বাংলায় যেমন দুর্গাপুজোয় ধুনচি নাচ প্রসিদ্ধ, তেমনই নবরাত্রিতে ভারতজুড়ে প্রসিদ্ধ ডাণ্ডিয়া নৃত্য। সেই ডাণ্ডিয়া নাচের অনুষ্ঠানেই যোগ দিয়েছিলেন ৩৫ বছরের এক ব্যক্তি।

মহারাষ্ট্রের ভরার শহরের একটি আবাসনে নবরাত্রি উপলক্ষে আয়োজিত ডাণ্ডিয়া নাচের অনুষ্ঠানে অংশ নেন মণীশ নারাপজি নামে ওই যুবক। নাচতে নাচতে আচমকা তিনি লুটিয়ে পড়েন।


থেমে যায় উৎসবের আনন্দ। ডাণ্ডিয়া থামিয়ে সকলে ব্যস্ত হয়ে পড়েন মণীশকে সুস্থ করে তুলতে। মণীশের বাবা ছেলেকে নিয়ে ছোটেন হাসপাতালে।

হাসপাতালে মণীশকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। মণীশের মৃত্যুর খবর চিকিৎসকদের মুখে শোনার পর পুত্রশোক সহ্য করতে পারেননি ৬৬ বছরের নারাপজি সোনিগ্রা। তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হন। হাসপাতালেই লুটিয়ে পড়ে মৃত্যু হয় তাঁর।

ছেলের মৃত্যুশোক সহ্য করতে না পেরে বাবারও মৃত্যুর ঘটনা গোটা উৎসবের মেজাজটাই স্তব্ধ করে দেয়। তাঁদের পরিচিত থেকে ওই ডাণ্ডিয়ায় অংশ নেওয়া মানুষজন শোকস্তব্ধ হয়ে যান।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button