National

ভেঙে পড়া টুইন টাওয়ারের জমিতে কি তৈরি হবে তা স্থির হয়ে গেল

বেআইনি হওয়ায় কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত নয়ডার টুইন টাওয়ার ৯ সেকেন্ডে ধুলোয় মিশে গেছে। এবার সেই জমিতে কি তৈরি করা হবে তাও স্থির হয়ে গেল।

নয়ডার টুইন টাওয়ার তৈরি হয়েছিল বটে, তবে তা বেআইনিভাবে তৈরি বলে এলাহাবাদ হাইকোর্টে মামলা রুজু হয়। সেই মামলায় ২০১৪ সালে এই টুইন টাওয়ার ভেঙে ফেলার নির্দেশ দেয় আদালত। এই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে প্রোমোটাররা যান সুপ্রিম কোর্টে।

সুপ্রিম কোর্ট গত বছরই নির্দেশ দেয় ৩ মাসের মধ্যে টাওয়ার ২টিকে ভেঙে ফেলতে হবে। কিন্তু প্রযুক্তিগত কারণে সে ২টি ভেঙে ফেলা সম্ভব হচ্ছিল না। অবশেষে ৩ হাজার ৭০০ কেজি বিস্ফোরক দিয়ে মাত্র ৯ সেকেন্ডে ভেঙে ফেলা হয় এই জোড়া প্রাসাদ। এখনও যার ধ্বংসস্তূপ সাফ করে উঠতে পারা সম্ভব হয়নি।

National News
টুইন টাওয়ারের ধ্বংসাবশেষ, ছবি – আইএএনএস

এদিকে টুইন টাওয়ার ধ্বংস হওয়ার পর কিন্তু সেখানে আর কোনও নতুন বাড়ি প্রোমোটিং হচ্ছেনা। বরং রেসিডেন্টস ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন নয়ডার সেক্টর ৯৩এ-র ওই বিশাল জমিতে মন্দির বানানোর পরিকল্পনা করে ফেলল।

বৈঠক করে কার্যত মন্দির তৈরিতে সিলমোহরও পড়ে গেছে। রামলালা এবং শিবের মন্দির তো হবেই। সেইসঙ্গে থাকবে অন্য দেবদেবীর মূর্তিও।


বিশাল চত্বর জুড়ে মন্দির যেমন হবে, তেমনই একটি পার্কও তৈরি হবে ওই জমিতে। মূলত ছোটদের বিনোদনের কথা মাথায় রেখেই এই পার্ক তৈরি হবে। তবে পার্কে আসতে পারবেন সকলেই। সবুজে ভরিয়ে দেওয়া হবে চত্বর। পরিবেশের কথা সবচেয়ে বেশি করে মাথায় রাখা হবে।

যদিও এটাও ঠিক যে ওই জমি এখনও প্রোমোটারদের হাতেই রয়েছে। তবে আইনত তাদের ওই জমিতে কিছু তৈরি করতে হলে এই ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের দুই তৃতীয়াংশ সদস্যের সমর্থন লাগবে। যা তারা কখনও পাবেনা বলেই জানিয়ে দিয়েছে এককাট্টা সংগঠন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button