National

গরিবের পকেটে রাতারাতি ১ কোটি টাকা, সহ্য হল না বন্ধুদের

আচমকা কেউ ১ কোটি টাকা পেয়ে গেলে তা লটারির শামিল। এটা অনেক সময় তাঁর আনন্দের কারণ হলেও বন্ধু বা পরিজনের ঈর্ষার কারণ হয়।

লটারি পাওয়া নয়। আবার লটারির চেয়ে কমও কিছু নয়। রাতারাতি ১ কোটি টাকা জিতে গেলে সেই আনন্দ ধরে রাখাও কঠিন হয়। কিন্তু যিনি পেলেন তাঁর যেমন জীবন বদলে যায় তেমনই তাঁর সেই প্রাপ্তি বহু মানুষের ঈর্ষারও কারণ হয়। বেশি করে হয় কাছের মানুষদের। ঠিক তেমনই একটা ঘটনা ঘটল।

গরিব নওয়াজ নামে এক তরুণ অনলাইন গেম খেলে ১ কোটি টাকার ওপর উপার্জন করে। একথা তাঁর বন্ধুরা জানতে পারেন। আর জানার পরই তাঁর সেই সাফল্য সহ্য করতে পারেনি। তারা একটা পরিকল্পনা করে।

পরিকল্পনা মত গরিব নওয়াজের ৭ বন্ধু মিলে তাঁকে অপহরণ করে। তারপর তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় এক অজ্ঞাত পরিচয় ফাঁকা জায়গায়। সেখানে তাঁকে আটক করে রেখে গরিবের বাড়িতে ফোন করে অপহরণকারী বন্ধুরা।

গরিবের বাবার কাছে তারা ১২ কোটি টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। কিন্তু তাঁর বাবা তা দিতে অস্বীকার করায় দর কষাকষি করে ১৫ লক্ষ টাকায় রফা হয়। তবে অপহরণকারীরা জানিয়ে দেয় ওই টাকা না পেলে গরিবকে হত্যা করবে তারা।

গরিবের বাবা এরপর সোজা হাজির হন থানায়। পুলিশকে সব বলার পর পুলিশের ৪টি দল অপহরণকারীরা কোথায় গরিবকে আটকে রেখেছে তার তল্লাশি শুরু করে।

খুব একটা কষ্ট করতে হয়নি পুলিশকে। দ্রুত খোঁজও মেলে। সেখান থেকেই গরিবের ৭ বন্ধুকে অপহরণে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে কর্ণাটকের হুব্বালি জেলায়। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button