National

শতাব্দী প্রাচীন খারচি পুজো শুরু, শুরু পাপমোচন পর্ব

শতাব্দী প্রাচীন খারচি পুজো শুরু হল আড়ম্বরের সঙ্গে। ৭ দিন ধরে চলবে এই পুজো। যাকে ঘিরে ভক্তের ঢল নামে।

বছরের পর বছর ধরেই যাবতীয় রীতি মেনে চলে আসছে খারচি পুজো। খার ও চি শব্দ জুড়েই খারচি শব্দের উৎপত্তি। খার শব্দের অর্থ পাপ এবং চি শব্দের অর্থ মোচন করা। পাপমোচন হয় এই পুজোয়। তাই এর নাম খারচি পুজো।

১৪ জন দেবতার পুজো হয় এখানে। একে বলা হয় চতুর্দশ দেবতার পুজো। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নিজে এদিন এই পুজোর জন্য সকলকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

ত্রিপুরার এই ৭ দিন ব্যাপী পুজোর পরিচিতি সারা ভারতে রয়েছে। ত্রিপুরায় এই পুজো বিশাল আড়ম্বরের সঙ্গে হয়ে থাকে। আগরতলা থেকে ৭ কিলোমিটার দূরে ত্রিপুরার আগের রাজধানী পুরান হাবেলি নামে জায়গায় এই পুজো হয়।

মন্ত্রোচ্চারণের মধ্যে দিয়ে এই পুজোর সূত্রপাত হল বৃহস্পতিবার। যে ১৪ জন দেবতার পুজো এখানে হয় তাঁরা হলেন শিব, দুর্গা, ব্রহ্মা, বিষ্ণু, লক্ষ্মী, সরস্বতী, কার্তিক, গণেশ, জলের দেবতা অবধি, চন্দ্র, গঙ্গা, অগ্নি, কামদেব এবং হিমাদ্রি বা হিমালয়।

এই পুজো উপলক্ষে একটি শোভাযাত্রা বার হয়। দেবতাদের নিয়ে পুরোহিতরা এই শোভাযাত্রায় অংশ নেন। শোভাযাত্রায় পা মেলান হাজার হাজার ভক্ত।

পুলিশ দিয়ে ঘিরে এই শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। ভক্তরা হাওড়া নদীতে একত্র হয়ে পুণ্যস্নানও করেন। এই পুজোয় ১০৮টি বলির প্রথা রয়েছে। এই পুজোর প্রধান ব্যয়ভার বহন করে ত্রিপুরা সরকার। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *