National

মা ও মেয়ের আনানো পরোটার গায়ে লেগে ওটা কি, বন্ধ হয়ে গেল রেস্তোরাঁ

মা ও মেয়ে হোটেল থেকে পরোটা আনিয়েছিলেন। মেয়ের খাওয়া হয়েও গিয়েছিল। মা খেতে বসে পরোটার তলায় যা পেলেন তাতে কার্যত আঁতকে উঠলেন তিনি।

মা ও মেয়ে স্থির করেছিলেন হোটেল থেকে আনিয়ে পরোটা খাবেন তাঁরা। সস সহযোগে পরোটা মন্দ হবে না। হোটেল থেকে অর্ডার দিয়ে পরোটা আনেনও।

পরোটা আসে খবরের কাগজে মোড়া অবস্থায়। সেই মোড়ক খুলে মেয়ে প্রথমেই তার ভাগের পরোটা খেয়ে নেয়। মায়ের পরোটাটা ছিল। যা কিছুক্ষণ পর ওই মহিলা নিয়ে বসেন।

মোড়ক খুলে পরোটা খেতে শুরুও করেছিলেন। কিন্তু সবচেয়ে নিচের পরোটার তলায় কিছু একটা রয়েছে বলে সন্দেহ হয় তাঁর। পরোটা তুলে দেখতে গিয়ে কার্যত আঁতকে ওঠেন তিনি। সময় নষ্ট না করে পুলিশে ফোন করেন।

পুলিশ পুরো কথা শুনে খাদ্য সুরক্ষা আধিকারিকদের বিষয়টি জানাতে বলে। সেখানে খবর দেওয়া হয়। খাদ্য সুরক্ষা আধিকারিকরা সেখানে হাজির হয়ে দেখেন পরোটার সঙ্গে লেগে রয়েছে সাপের খোলস। যা ওই খবরের কাগজে ছিল বলে মনে করছেন তাঁরা।

যখন পরোটা ওই কাগজে মোড়ানো হয় তখন সেই সাপের খোলস কাগজে রয়ে যায়। ওই অবস্থাতেই তার ওপর পরোটা দিয়ে মুড়ে দেওয়া হয়।

এই ঘটনায় ওই হোটেলের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করেছে খাদ্য সুরক্ষা দফতর। হোটেল মালিককে শোকজ করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে কেরালার তিরুবনন্তপুরমের একটি হোটেলে।

বিষয়টি সোশ্যাল মাধ্যমেও হইচই ফেলে দিয়েছে। অনেকেই বাইরে থেকে খাবার আনিয়ে খান। তাঁরা এই খবর পড়ার পর আরও সতর্ক হয়েছেন। কিছুটা আতঙ্কিতও।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.