National

একটি মানুষের চেষ্টায় মুখোমুখি সংঘর্ষ হতে হতে বাঁচল ২ বিমান

বরাত জোরেই রক্ষা পেলেন কয়েকশো বিমানযাত্রী। ২টি বিমানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হতে হতে বাঁচল। যার মধ্যে একটি বিমান ছিল কলকাতামুখী।

২টিই ইন্ডিগো বিমান সংস্থার বিমান। একটি বিমান উড়েছিল কলকাতার জন্য। অন্যটি ভুবনেশ্বরের জন্য। ২টিই উড়েছিল বেঙ্গালুরু বিমানবন্দর থেকে।

বিমানের নিয়ম হচ্ছে আকাশে একাধিক বিমান প্রায় একই জায়গা দিয়ে উড়তে পারে, তবে তাদের মধ্যে সমান্তরাল বা উল্লম্ব দূরত্ব থাকতে হবে।

কতটা দূরত্ব কমপক্ষে থাকতে হবে তাও জানা বিমানের সঙ্গে যুক্ত পাইলট থেকে এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের। আর সেখানেই হল বিপত্তি। ২টি বিমানের এই দূরত্বের বালাই নেই বলে আচমকাই নজর পড়ে ওই মানুষটার।

তিনি পেশায় রাডার কন্ট্রোলার। তাঁরই প্রথমে নজরে আসে বিষয়টি। ২টি বিমান বেঙ্গালুরু বিমানবন্দর থেকে উড়লেও তাদের মধ্যে দূরত্ব প্রয়োজনের চেয়ে অনেক কম রয়েছে।

আর সময় নষ্ট না করে দ্রুত পদক্ষেপ করেন তিনি। আর তাতেই একদম শেষ মুহুর্তে ২টি বিমান মুখোমুখি সংঘর্ষ এড়াতে সক্ষম হয়।

পুরো ঘটনায় ৪০০-র ওপর যাত্রীর প্রাণ সংশয় তৈরি হয়েছিল। বিষয়টি এতটাই স্পর্শকাতর হয়েছে যে ডিজিসিএ দ্রুত বিষয়টি নিয়ে রিপোর্ট তলব করেছে। কোথায় গাফিলতির জন্য এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হল তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ঘটনাটি ঘটেছে কিছুদিন আগে।

জানা গেছে বেঙ্গালুরু উত্তর ও দক্ষিণে ২টি রানওয়ে রয়েছে। কিন্তু সেদিন দক্ষিণের রানওয়ে বন্ধ করে কেবল উত্তর রানওয়ে দিয়ে বিমান ওঠানামার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। যা দক্ষিণ রানওয়ের আধিকারিকের সেভাবে জানা ছিলনা।

ফলে উত্তর থেকে একটি বিমান যখন ওড়ে তখন উল্টো দিকের দক্ষিণের রানওয়ে থেকেও একটি বিমানকে উড়তে সবুজ সংকেত দেওয়া হয়। তাতেই ২টি বিমান আকাশে মুখোমুখি এসে পড়ে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.