National

ষষ্ঠ বিয়েতে বসার আগেই তৃতীয় পক্ষের বাগড়া, মুশকিলে প্রাক্তন মন্ত্রী

ষষ্ঠবারের জন্য বিয়েতে বসাটা ছিল সময়ের অপেক্ষা। কিন্তু সে বিয়ে আর করা হল না। তার আগেই বাগড়া দিলেন তৃতীয় স্ত্রী।

সব ঠিকঠাক হয়ে গিয়েছিল। এক তরুণীর সঙ্গে বিয়ে হওয়াটা ছিল কেবল সময়ের অপেক্ষা। হচ্ছিল সবটাই লুকিয়ে। কিন্তু কীভাবে যেন কথা পৌঁছে যায় তাঁর তৃতীয় স্ত্রীর কানে।

হয়তো অন্য স্ত্রীদের কানেও পৌঁছেছিল কিন্তু পদক্ষেপ করেন তৃতীয় স্ত্রী। তিনি প্রথমে স্বামীর কাছে গিয়ে যা শুনেছেন তা সত্যি কিনা জানতে চান।

তাতে উত্তরের বদলে মেলে চরম লাঞ্ছনা। তৃতীয় স্ত্রীর অভিযোগ তাঁকে তাঁর স্বামী তিন তালাক দিয়ে সেই মুহুর্তে বাড়ি থেকে টেনে বার করে দেন।

এরপর আর অপেক্ষা না করে ওই যুবতী পৌঁছে যান পুলিশের কাছে। অভিযোগ দায়ের করেন স্বামীর বিরুদ্ধে। মুসলিম ওমেনস ম্যারেজ অ্যাক্টের আওতায় স্বামী চৌধুরি বসিরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে পুলিশ।

চৌধুরি বসির উত্তরপ্রদেশে মায়াবতী সরকার ক্ষমতায় থাকাকালীন মন্ত্রী ছিলেন। পরে তিনি সমাজবাদী পার্টিতে যোগ দেন। পরে সপা-ও ছেড়ে দেন। বর্তমানে তিনি সেভাবে রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত নন।

এদিকে ২০১২ সালে বসির তৃতীয় বিয়েটি করেন। বিয়ে করেন নাগমা নামে এক তরুণীকে। নাগমাকে বিয়ের আগেই তাঁর ২ স্ত্রী ছিলেন।

নাগমাকে ২০১২ সালে বিয়ে করার পর আরও ২টি বিয়ে করেন বসির। নাগমার ২ সন্তানও হয়। নাগমা পুলিশকে জানিয়েছেন তিনি শেষ মুহুর্তে খবর পান যে তাঁর স্বামী শায়িস্তা নামে এক তরুণীকে ফের বিয়ে করতে চলেছেন। তারপরই তিনি পদক্ষেপ করেন। আপাতত ষষ্ঠ বিয়ে করা লাটে উঠেছে প্রাক্তন মন্ত্রী চৌধুরি বসিরের। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button