National

বিয়ের সাজে হাতে অস্ত্র তুলে নিলেন কনে, বাহবা দিলেন সকলে

বিয়ের আর কিছুটা সময় বাকি। কনে তৈরি বিয়ের সাজে। কিন্তু মণ্ডপে বসার আগে কনে হঠাৎ হাতে তুলে নিলেন অস্ত্র। তারপর যা করলেন তার জন্য বাহবা কুড়িয়েছেন তিনি।

বিয়ে বাড়িতে বর এসে উপস্থিত। সঙ্গে বরযাত্রীও। বিয়ের আর সামান্য সময় বাকি। বিয়ের শাড়ি গয়নায় সেজে তৈরি কনেও। এমন সাজে কনেরা সব সামলে রাখতে খুব কমই নড়া চড়া করেন। যদিও বা করেন তা খুব ধীরে।

কিন্তু এ কনে সেসবের তোয়াক্কা না করে সিল্কের শাড়ি আর গয়না ও ফুলের সাজে সেজে হঠাৎ উড়ে পড়লেন। তারপর চলে এলেন বিয়ে বাড়ির সামনের খোলা অংশে।

কনে এভাবে উঠে আসায় কিছুটা অবাক হন সকলে। অবাক আরও বেশি হন যখন দেখেন কনে হঠাৎ হাতে অস্ত্র তুলে নিলেন। কী হচ্ছে কিছু বুঝে ওঠার আগেই কনে বিয়ের সাজেই অস্ত্র নিয়ে নানা কসরত করতে শুরু করেন। যা করা নেহাত সহজ কাজ নয়।

অনেক অনুশীলন না থাকলে তা করা যায়না। যদিও বা যায় তো তা কনের সাজে তো কার্যত অসম্ভব। কিন্তু সেই অসম্ভবকে সম্ভব করে দেখালেন কনে পি নিশা।

তামিলনাড়ুর তুতিকোরিন জেলার থিরুকোলুর গ্রামের এই বিবাহ অনুষ্ঠান নিমেষে এক মার্শাল আর্ট প্রদর্শনের প্রাঙ্গণে পরিণত হয়।

সুরুল ভাল ভিচু, রেহাই কামবু, সিলামবাম, আদিমুরাই, কালাইপাত্তু, থিপান্থাম সহ তামিলনাড়ুর নিজস্ব বিভিন্ন মার্শাল আর্ট এক এক করে তুলে ধরলেন পি নিশা।

৩ বছর এই কলার ট্রেনিং নেওয়া নিশা জানালেন, বিয়ের সাজে এমনটা করা সহজ না হলেও তিনি এটা করলেন মেয়েদের আত্মরক্ষার কৌশল সম্বন্ধে অবগত করতে। যাতে তাঁরাও এগুলি শিখে নিজেদের রক্ষা করতে পারেন।

তা বলে বিয়ের দিন? নিশার দাবি এটা তাঁর স্বামীও খুব ভাল নজরে নিয়েছেন। এমনকি তিনি কেন এমনটা করলেন তা বলার পর বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত সকলে হাততালি দিয়ে নিশাকে বাহবা জানান। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More
Back to top button