National

করোনা পরিস্থিতিতে অভিনব সোনার গয়না গড়ালেন গোল্ডেন বাবা

নাম আছে ঠিকই। তবে তাঁকে সকলে গোল্ডেন বাবা বলেই জানেন। সারা গায়ে সোনার গয়না থাকায় তিনি আবার স্থানীয় বাপি লাহিড়িও।

সোনার জিনিসপত্রে তাঁর অমোঘ টান। সারা দেহ তাঁর সোনা দিয়ে মোড়া। গলায় ৪টে সোনার মোটা মোটা চেন পরেন তিনি। যার ওজন ২৫০ গ্রাম। এছাড়াও তাঁরা সারা গায়ে থাকে সোনার গয়না। যার মোট ওজন ২ কিলোগ্রাম।

এছাড়া তাঁর একটি সোনার শাঁখ হয়েছে। রয়েছে একটি সোনার মাছ ও সোনার হনুমানজি লকেট। তাঁর যে রিভলভারটি রয়েছে সেটির খাপও সোনার।

এছাড়া তাঁর ৩টি সোনার বেল্টও রয়েছে। এমনই তাঁর সোনার জিনিসের শখ। আর এজন্যই তাঁর একাধিক নাম রয়েছে। কেউ তাঁকে বলেন উত্তরপ্রদেশের বাপি লাহিড়ি। আবার কেউ তাঁকে বলেন গোল্ডেন বাবা।

তাঁর আসল নাম মনোজ সেনগার। সেখান থেকেই তিনি হয়ে উঠেছেন মনোজানন্দ মহারাজ। কানপুরের বাসিন্দা এই মনোজানন্দ মহারাজের সোনার জিনিসের শখে এবার করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে যুক্ত হল আরও একটি গয়না। একটি সোনার মাস্ক।


করোনা থেকে বাঁচতে মাস্ক পরতে বলা হচ্ছে সকলকে। কিন্তু মনোজ তো গোল্ডেন বাবা। তাই তিনি সাধারণ মাস্ক পরতে পারেননি। নিজের জন্য গড়িয়ে নিয়েছেন একটি সোনার মাস্ক।

৫ লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে এই মাস্ক তৈরি করতে। মাস্কের মধ্যে রয়েছে একটি বিশেষ স্যানিটাইজার। যা ৩৬ মাস কাজ করবে। আপাতত এটাই মনোজের স্বর্ণভাণ্ডারে নয়া কালেকশন। যা তিনি করোনার সময় পরেও থাকছেন।

এদিকে এমন সোনার প্রতি আকর্ষণের জেরে তাঁকে নাকি প্রায়ই গুণ্ডাদের হুমকির মুখে পড়তে হয়। তা বলে গা ভর্তি গয়না তো আর পরিত্যাগ করা যায়না!

তাই সব দিক বজায় রাখতে গোল্ডেন বাবা সর্বদা সঙ্গে রাখেন ২ বন্দুকধারী সুরক্ষাকর্মীকে। যাঁরা দিবারাত্র তাঁকে পাহারা দেয়। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button