National

জঞ্জাল গাড়িতে দেহ ফেলছে পুলিশ, তদন্তের নির্দেশ

এক নির্মম দৃশ্য ফের সামনে এল সোশ্যাল মিডিয়ার হাত ধরে। একটি জঞ্জালের গাড়িতে ফেলা হচ্ছে একটি দেহ। আর তা ফেলছে পুলিশ। ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

কদিন আগেই রাপ্তি নদীর ব্রিজ থেকে জলে করোনায় মৃতের দেহ ছুঁড়ে ফেলার ভিডিও ভাইরাল হয়। নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। সেক্ষেত্রে পরিবারের লোকজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে পুলিশ।

এবার ফের একটি ভিডিও সামনে এসেছে। যেখানে দেখা গেছে প্যাকেটে মোড়া একটি দেহ একটি জঞ্জাল ফেলার গাড়িতে ফেলছেন ২ পুলিশকর্মী। আর কাছেই দাঁড়িয়ে আছেন এক পুলিশ আধিকারিক। তাঁর নির্দেশেই দেহ ফেলা হয় বলে অভিযোগ।

এমন অমানবিক দৃশ্য সামনে আসার পর বিষয়টি নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশ সুপার। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের মাহোবা জেলা হাসপাতালের সামনে।

পুলিশ অবশ্য জানিয়েছে ওই ব্যক্তির ছেলে গত শুক্রবার বাবার জ্বর আসাতে তাঁকে নিয়ে দিল্লি থেকে মাহোবা চলে আসেন। সেদিনই ওই বৃদ্ধের শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হয়। তাঁকে দ্রুত জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসেন তাঁর ছেলে।


সেখানে ওই ব্যক্তির চিকিৎসা শুরুর আগেই মৃত্যু হয়। দেহ রাখা হয় মর্গে। কিন্তু ওই পরিবার দেহ নিতে অস্বীকার করে বলে দাবি করেছে পুলিশ।

পুলিশ আরও দাবি করেছে যে পরে বৃদ্ধের ছেলেই দেহ সৎকারের জন্য নিয়ে যেতে একটি জঞ্জাল ফেলার গাড়ি নিয়ে আসেন। সেখানেই তোলা হয় দেহ।

যদিও পুরো ঘটনার তদন্ত করে দ্রুত রিপোর্ট তলব করেছেন মাহোবার পুলিশ সুপার। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button