National

সৎকারের অর্থ নেই, অন্য পথে করোনায় মৃতের সৎকারের ছবি ভাইরাল

করোনায় মারা যাওয়ার পর সৎকারের সুযোগ পেয়েছিল পরিবার। কিন্তু অর্থাভাবে সে রাস্তায় হাঁটেনি তারা। অন্য পথে সৎকারের ছবি এখন ভাইরাল।

করোনায় প্রিয়জনের মৃত্যুর খবর এসে পৌঁছয় গ্রামে। হাসপাতালেই মৃত্যু হয় করোনা সংক্রমিতের। হাসপাতাল প্রয়োজনীয় কাজ সেরে দেহ অ্যাম্বুলেন্সে করে পাঠিয়ে দেওয়ারও বন্দোবস্ত করে।

এদিকে গ্রামে ততক্ষণে জানাজানি হয়ে গেছে যে করোনায় তাদের গ্রামেরই এক ব্যক্তির প্রাণ গিয়েছে। দরিদ্র পরিবার মৃত্যু শোকে তখন মুহ্যমান। তারমধ্যেই অন্য চিন্তা। করোনা রোগীর দেহ সৎকার বলে কথা। নিয়ম মেনে করতে হবে। খরচও রয়েছে।

এরমধ্যেই কয়েকজন গ্রামবাসী বলেন, করোনা রোগীর সৎকারের যদি বন্দোবস্ত করাও হয় তাহলেও চিন্তা রয়েছে। দেহ থেকে করোনা ছড়াতে পারে। অগত্যা উপায়?

উপায় বার হয়। হাসপাতাল থেকে দেহ গ্রামে পৌঁছনোর আগেই সেই বন্দোবস্ত পাকাও করা হয়। বিহারের কাটিহার জেলার ভেরিয়া রাহিকা গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে গেছে সাউরা নদী। সেই নদীর পারেই ৮ ফুট গর্ত খুঁড়ে ফেলা হয়।

অ্যাম্বুলেন্সে দেহ এসে পৌঁছনোর পরই দেহ বার করে ওই গর্ত পুরে ফেলা হয়। যা বেশ কয়েকজন ভিডিও করেন। তারপর তা সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করে দেন।

এই ভিডিও ভাইরাল হতে সময় নেয়নি। পুরো ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দেন জেলাশাসক। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More
Back to top button