National

বিয়ে করে স্ত্রীকে নিয়ে আকাশ থেকে নামলেন কৃষক সন্তান

করোনা নিয়ে নাজেহাল গোটা দেশ। কিন্তু সেই করোনা পরিস্থিতিতেও নববধূর স্বপ্ন পূরণে খামতি রাখলেন না এক কৃষক সন্তান। স্ত্রীকে নিয়ে গ্রামে ফিরলেন হেলিকপ্টারে।

গোটা গ্রামটা কার্যত হাঁ করে চেয়ে দেখল তাঁদের। বিয়ে করে স্ত্রীকে নিয়ে আকাশ থেকে নেমে এলেন এক কৃষক সন্তান। করোনার জেরে এখন সারা দেশ চরম পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে।

এরমধ্যেই বিয়ের দিন ছিল সীয়ারাম গুর্জর নামে এক যুবকের। কৃষক পরিবারের ছেলে সীয়ারামের বিয়ে স্থির হওয়ার পর তাঁর হবু স্ত্রী রমা তাঁর কাছে একটি আবদার করে বসেন।

রমা সীয়ারামকে জানান তাঁর স্বপ্ন যে তিনি যাঁকে বিয়ে করবেন তিনি বিয়ে করে ফেরার সময় তাঁকে নিয়ে হেলিকপ্টারে করে নিজের বাড়িতে নিয়ে যাবেন।

স্বপ্নটা যথেষ্ট খরচ সাপেক্ষ তা বুজতে পারেন সীয়ারাম। কিন্তু হবু স্ত্রীর স্বপ্ন ভাঙতে দেননি তিনি। ব্যবস্থা করে ফেলেন একটি চপারের। ভাড়া ৭ লক্ষ টাকা।


প্রথমে জেলা প্রশাসন অনুমতি দিতে না চাইলেও গুর্জর পরিবার করোনা বিধি মেনে চপারে ওঠার নিশ্চয়তা দিতে তারা তা মেনে নেয়।

চপারে করেই বিয়ে করতে যান সীয়ারাম। সঙ্গে ছিলেন পরিবারের ২ জন মাত্র সদস্য। তারপর দিন বিয়ে করে ফেরেন বাড়িতে। সঙ্গে স্ত্রী রমা। সেই চপারেই বিয়ে করে ফেরেন তিনি।

সীয়ারাম তাঁদের গ্রামে স্ত্রীকে নিয়ে নামেন চপার থেকে। যা দেখতে রীতিমত ভিড় জমে যায়। ছিল পুলিশও। রাজস্থানের ভরতপুর জেলার রায়পুর গ্রামের এই ঘটনায় রীতিমত হৈচৈ পড়ে গেছে গোটা দেশে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button