National

কৃষ্ণ প্রেমে বিভোর রাশিয়ান মহিলার চরম পদক্ষেপ

শ্রীকৃষ্ণের সঙ্গে একবার দেখা করার জন্য চরম পদক্ষেপ করলেন এক রাশিয়ান মহিলা। অন্তত তাঁর পরিচিতের বক্তব্য শুনে এমনই ধারণা পুলিশের।

মথুরা : ভগবান শ্রীকৃষ্ণকে ভালোবেসে আত্মত্যাগ করেছেন অনেকে। ইতিহাস তার সাক্ষ্য বহন করছে। কৃষ্ণের বিরহে বিরহিণী রাধার যন্ত্রণার কাহিনি আপামর ভারতবাসীর জানা। তেমনই জানা মীরাবাঈয়ের কথা। তাঁর আত্মত্যাগের গাথা সকলের মুখে মুখে ফেরে।

এমন আরও অনেক জানা অজানা নামের পিছনে রয়েছে শ্রীকৃষ্ণের প্রতি গভীর প্রেমের যন্ত্রণা, তাঁর সাথে মিলিত না হওয়ার দুঃখ। মহাভারত ও ইতিহাসের কাহিনিকে পিছনে ফেলে এই ২১ শতকে দাঁড়িয়ে ঘটল এমনই এক ঘটনা, যা দেখে স্তম্ভিত গোটা বৃন্দাবন।

৪১ বছরের রাশিয়ার অধিবাসী তাতিয়ানা মেলভসকায়া বৃন্দাবনের এক অতিথিশালার ৬ তলা থেকে মরণ ঝাঁপ দেন। অত উপর থেকে পড়ায় তাঁর স্বাভাবিকভাবেই মৃত্যু হয়।

আপাতভাবে সাধারণ আত্মহননের ঘটনা মনে হলেও ওই আবাসনে থাকা মহিলার এক বন্ধুর বয়ানের প্রেক্ষিতে পুলিশের ধারণা তাতিয়ানা সম্ভবত ভগবান শ্রীকৃষ্ণকে পাওয়ার আশায়, তাঁর সাথে সাক্ষাৎ করার চিন্তায় ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

তাতিয়ানা বৃন্দাবনে ছিলেন গতবছর ফেব্রুয়ারি মাস থেকে। বৃন্দাবনের বৃন্দাবন ধাম অ্যাপার্টমেন্টে, যেটি রাশিয়ান হাউস নামে অধিক পরিচিত, সেই অতিথিশালায় থাকতে শুরু করেন তিনি।

তাতিয়ানা ট্যুরিস্ট ভিসায় থাকছিলেন। রাশিয়ার রোস্তভ শহরের বাসিন্দা তাতিয়ানা রাশিয়ান হাউসের ৬ তলার একটি ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন । তাতিয়ানার পরিচিত রাশিয়ান হাউসের আরও এক বাসিন্দা পুলিশকে জানিয়েছেন, তাতিয়ানা প্রায়ই শ্রীকৃষ্ণের কথা বলতেন। তিনি জানিয়েছিলেন তিনি শ্রীকৃষ্ণের সাথে সাক্ষাৎ করতে চান।

সেই কথা থেকেই পুলিশ অনুমান করছে ওই মহিলা ভগবানের সাক্ষাৎ পাওয়ার আশায় ৬ তলা থেকে ঝাঁপ দেন। পুলিশ যদিও এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। এর পিছনে অন্য কোনও রহস্য আছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ভগবান শ্রীকৃষ্ণের টানে নিজের দেশ এমনকি পরিবার ছেড়ে বহু বিদেশি এদেশে এসেছেন। পাকাপাকি ভাবে থেকেও গেছেন অনেকে। তবে কৃষ্ণপ্রেমে বিভোর হয়ে তাঁর সাথে সাক্ষাৎ করার আশায় এভাবে প্রাণ বিসর্জন দেওয়ার ঘটনা বিরল। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button