National

সমীক্ষা নস্যাৎ করে বিহারের মসনদে ফের নীতীশ বিজেপি

এক্সিট পোল বা বুথ ফেরত সমীক্ষা বলেছিল এবার বিহার হাতছাড়া হচ্ছে নীতীশের। কিন্তু বাস্তবে বিহারে ফের ক্ষমতায় ফিরল নীতীশ কুমারের জেডিইউ-বিজেপি জোট।

নয়াদিল্লি : বিহারে ক্ষমতায় রয়ে গেল নীতীশ কুমার ও বিজেপি-র এনডিএ। বিজেপি আগেই জানিয়ে দিয়েছে নীতীশ কুমারই বিহারের মসনদে বসবেন। তবে এবার লড়াই হয়েছে টক্করে টক্করে। যা কিন্তু নীতীশ ও বিজেপি সরকারকে চাপে রাখবে।

মঙ্গলবার টানটান উত্তেজনার মধ্যেই ভোটগণনা চলেছে দিনভর। বিজেপি-জেডিইউ জোট গণনা শুরু হওয়া থেকেই এগিয়ে ছিল ঠিকই কিন্তু সারাদিনই তাদের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলেছে আরজেডি, কংগ্রেস ও বামেদের জোট ‘মহাগঠবন্ধন’।

কখনও এমনও অবস্থা হয়েছে যে এগিয়ে থাকার নিরিখে মনে হচ্ছিল ১২২-এর ম্যাজিক ফিগারে এনডিএ পৌঁছতে পারবেনা। কিন্তু গণনা শেষে শেষ হাসি হাসল এনডিএ। এনডিএ জিতল ১২৫টি আসন। পেল নিরঙ্কুশ সংখ্যা গরিষ্ঠতা।

বুথ ফেরত সমীক্ষা এবার বিহারে মিলল না। সমীক্ষায় দেখা গিয়েছিল বিহারে এনডিএ হারছে। বিহারে ক্ষমতায় আসছে মহাজোট। কিন্তু বাস্তবে চিত্র অন্যই হল। তবে যা দাঁড়াল তাতে অনেকগুলি অঙ্ক হয়তো বদলাবে। যেমন নীতীশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ কিন্তু ভোটবাক্সে প্রকাশ পেয়েছে। যেখানে ২০১৫ সালে নীতীশের দল জেডিইউ জিতেছিল ৭১টি আসন, সেখানে এবার তা কমে হয়েছে ৪৩টি।

অন্যদিকে তাদের জোটসঙ্গী বিজেপি গতবার জিতেছিল ৫৩টি আসন। সেখানে এবার জিতেছে ৭৪টি। ফলে নীতীশ মসনদে বসলেও তাঁকে বিজেপির প্রবল চাপেই কাজ করতে হবে। কারণ বিজেপি তাদের চেয়ে আসনের নিরিখে অনেকটাই এখন সংখ্যাগরিষ্ঠ।

আরজেডি-কংগ্রেস-বামেদের মহাজোটে আবার আরজেডি-র আসন এবার কমেছে। আরজেডিকে নিয়ে এবার যথেষ্ট আশার কথা শোনা গেলেও ২০১৫ সালে তারা যেখানে ৮০টি আসন জিতেছিল সেখানে এবার জিতেছে ৭৫টি আসন। ফলে তেজস্বী যাদবের যাদু কাজ করল না ব্যালটে।

কংগ্রেসও গতবার জিতেছিল ২৭টি আসনে। এবার জিতল ১৯টি আসনে। বরং মহাজোটকে এবার সবসময় লড়াইয়ে রেখেছিল বামেরা। সিপিআইএমএল গতবার পেয়েছিল ৩টি আসন। এবার তারা পেয়েছে ১১টি। সিপিএম ও সিপিআই গতবার একটিও আসন পায়নি। এবার তারা যথাক্রমে পেয়েছে ৩টি ও ২টি আসন।

যেটা নজরকাড়া তা হল এবার অনেকের আসন কমা বা বাড়া হলেও ফলটা একদম এক। ২০১৫ সালেও মহাজোট পেয়েছিল ১১০টি আসন। এবারও তাদের দখলে রইল সেটাই। অন্যদিকে জেডিইউ ও বিজেপি-র এনডিএ জোট গতবার জিতেছিল ১২৫টি আসন। এবারও তারা পেল ১২৫টি।

বিহারে এবার মনে করা হচ্ছিল রামবিলাস পাসোয়ানের দল লোক জনশক্তি পার্টি হয়তো ম্যাজিক ফিগারে পৌঁছতে কিং মেকার-এর কাজ করতে পারে। কিন্তু তা হল না। রামবিলাসের ভোটের মুখে মৃত্যু হয়। তাঁর দল কিন্তু বেশি আসন জিততে পারল না। গতবার পেয়েছিল ২টি আসন। এবার রামবিলাসের ছেলে চিরাগ পাসোয়ানের নেতৃত্বে লোক জনশক্তি পেল ১টি আসন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.