National

গ্রামে ঢুকে বুনো শূকরের তাণ্ডব কাড়ল প্রাণ

গ্রামে ঢুকে তাণ্ডব চালাল এক বুনো শূকর। তার তাণ্ডবে প্রাণ গেল একজনের। ক্ষুব্ধ গ্রামবাসীরা।

গ্রামে গত সপ্তাহেই একবার একটি বুনো শূকর পাশের জঙ্গল থেকে বেরিয়ে হানা দিয়েছিল। সে যাত্রায় কেউ প্রাণে মারা যাননি। তবে ক্ষয়ক্ষতি কিছু হয়েছিল। তারপরই গ্রাম থেকে খবর দেওয়া হয়েছিল বন দফতরকে। কিন্তু বন দফতর কিছু করে ওঠার আগেই ফের গত মঙ্গলবার বুনো শূকরের হামলা হল। একটিই বুনো শূকর হামলা চালায় এদিন। বিকেলের দিকে শূকরটি গ্রাম লাগোয়া ক্ষেতের দিকে যায়। সেখান দিয়ে তখন স্ত্রী মুল্লিদেবীকে নিয়ে বছরর ৫৫-র কৃষক গোবর্দ্ধন ক্ষেতের দিকে যাচ্ছিলেন।

আচমকাই কৃষক ও কৃষকপত্নীর ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে বিশাল চেহারার বুনো শূকরটি। তার হামলা সামলাতে পারেননি ২ জনে। বুনো শূকরের আঁচড়, কামড়ে যন্ত্রণায় আতঙ্কে আর্তনাদ করতে থাকেন ২ জনে। তাঁদের আর্তনাদ শুনে গ্রামের মানুষ লাঠিসোটা নিয়ে ছুটে আসেন। এত মানুষকে আসতে দেখে ভয় পেয়ে বুনো শূকরটি ছুটে জঙ্গলে পালিয়ে যায়।

গ্রামবাসীরা গোবর্দ্ধন ও তাঁর স্ত্রী মুল্লিদেবীকে নিয়ে ছোটেন হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসকেরা গোবর্দ্ধনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। তবে মুল্লিদেবী এখনও চিকিৎসাধীন। তবে সংকটজনক। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তরপ্রদেশের শাহজাহানপুর জেলার মাহুদুর্গ গ্রামে যথেষ্ট ক্ষোভ দানা বেঁধেছে। গ্রাম প্রধানের দাবি, তাঁরা বন দফতরকে আগেই জানানো সত্ত্বেও বন দফতর বুনো শূকরের হাত থেকে তাঁদের মুক্তি দেওয়ার কোনও বন্দোবস্ত করেনি। যার জেরে এক গ্রামবাসীর প্রাণ পর্যন্ত গেল। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button