National

করোনা ঠেকাতে এবার চিউইং গামে কোপ

চিউইং গাম ও চিবিয়ে খাওয়ার মত তামাকজাত দ্রব্য এখন বিক্রি করতে পারবেন না বিক্রেতারা। আপাতত এসব বিক্রি বন্ধ।

করোনা চেন ভেঙে এই মারণ ভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া রুখতে চলছে লকডাউন। লকডাউনের মেয়াদ ৩ মে পর্যন্ত বাড়িয়েছে কেন্দ্র। প্রধানমন্ত্রী মঙ্গলবার তা ঘোষণা করেছেন। এদিকে কিছু নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দোকান খোলা রয়েছে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। সেসব দোকানে চিউইং গামও পাওয়া যায়। পাওয়া যায় বিভিন্ন ধরণের চিবিয়ে খাওয়ার মত তামাকজাত দ্রব্য। বিক্রিও হচ্ছে। সেখানই এবার কোপ দিল গোয়ার একমাত্র পুরসভা এলাকা পানাজির পুরবোর্ড।

পানাজি পুরসভা জানিয়ে দিয়েছে করোনা ছড়িয়ে পড়া রুখতে চিউইং গাম ও চিবিয়ে খাওয়ার মত তামাকজাত দ্রব্য এখন বিক্রি করতে পারবেন না বিক্রেতারা। আপাতত এসব বিক্রি বন্ধ। পরবর্তী নোটিস জারি না হওয়া পর্যন্ত বিক্রি বন্ধই থাকবে। যদি এরপরও কোনও বিক্রেতাকে চিউইং গাম ও চিবিয়ে খাওয়ার মত তামাকজাত দ্রব্য বিক্রি করতে দেখা যায় তবে তাঁর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ করা হবে বলেও সতর্ক করেছে পুরসভা।

কিন্তু কেন এমন নির্দেশ? বিশেষজ্ঞেরা মনে করছেন, চিউইং গাম চিবিয়ে কেউ খেয়ে ফেলেন না। তা একসময়ে ফেলে দেন। এই ফেলে দেওয়া চিউইং গাম থেকে করোনা ছড়াতে পারে। অন্যদিকে চিবিয়ে খাওয়ার মত তামাকজাত দ্রব্য মুখে দেওয়ার পর অনেকেই থুতু বা পিক ফেলেন। এই ফেলে দেওয়া পিক থেকেও করোনা ছড়ানোর সম্ভাবনা থেকে যাচ্ছে। তাই এই পদক্ষেপ। গোয়ায় বর্তমানে ২ জন করোনা পজিটিভ রোগী রয়েছেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button