National

প্রেমিকাকে নিয়ে পালানোর শাস্তি, যুবককে নির্মমভাবে পেটাল পুলিশ

এক যুবকের দুহাত চেপে ধরা। একটি বিশাল থামের একদিকে একটা হাত এক পুলিশকর্মী চেপে ধরে আছেন। অন্যদিকেও একজন ধরে আছেন। তবে তাঁকে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছেনা। এভাবেই ওই যুবককে ২ পুলিশকর্মী ধরে আছেন। থামের গায়ে লেপটে গেছেন যুবক। আর অন্য এক পুলিশকর্মী তাঁকে বেল্ট দিয়ে মারছেন। একের পর এক বেল্টের ঘা পরছে আর যন্ত্রণায় চিৎকার করে উঠছেন ওই যুবক। সেই ছবি আবার ভিডিও করছিলেন পাশে দাঁড়িয়ে থাকা অন্য পুলিশকর্মীরা। ওই যুবক যতই চিৎকার করেন, ততই তাঁরা উল্লাসে হেসে উঠছিলেন। এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই পুলিশের এমন আচরণের বিরুদ্ধে সোচ্চার হন নেটিজেনরা।

ঘটনাটি ঘটেছে কানপুরে। সেখানেই একটি গ্রামের এক তরুণীকে ভালবেসে তাঁকে নিয়ে পালিয়েছিলেন ওই যুবক। তারপরই তাঁদের খোঁজ শুরু করে পুলিশ। পরে ওই যুবককে পাকড়াও করে থানায় নিয়ে যাওয়ার আগে তাঁকে প্রকাশ্যে এভাবে বেঁধে বেল্ট পেটা করেন তাঁরা। আইন নয়, তরুণীকে নিয়ে পালানোর শাস্তি দেওয়ার দায়িত্ব প্রাথমিকভাবে পুলিশকর্মীরা নিজেরাই হাতে তুলে নেন। পুরো ঘটনাটাই ঘটে থানার বাইরে।

এই ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়তে পুলিশের এহেন আচরণ প্রশ্নের মুখে পড়েছে। অনেকেই এই ঘটনার জন্য সংশ্লিষ্ট পুলিশকর্মীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি করেছেন। কানপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারও বিষয়টিকে হাল্কাভাবে নিচ্ছেন না। তিনি পরিস্কার জানিয়েছেন, গোটা ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দোষী প্রমাণিত হলে সংশ্লিষ্ট পুলিশকর্মীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.