National

বিড়াল পুষতে মায়ের বাধা, অভিমানে মরণঝাঁপ যুবকের

মা বিড়াল পুষতে বাধা দেওয়ায় রাগে দুঃখে আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন মুম্বই নিবাসী মৌনিক বাবুরাও সোনালকর নামে বছর ২২-এর এক যুবক। মেরিন ইঞ্জিনিয়ার ওই যুবক টিভিতে, সোশ্যাল মিডিয়ায় লোমশ পার্সিয়ান বিড়ালের ছবি, তাঁদের দুষ্টু মিষ্টি কার্যকলাপ দেখে মুগ্ধ হয়ে গিয়েছিলেন। ওইরকম একটি বিড়াল পোষার ভারী সাধ জেগেছিল মনে। তাই ৬ হাজার টাকার একটি পার্সিয়ান বিড়াল কিনে মঙ্গলবার তাকে বাড়ি নিয়ে আসেন ঐ যুবক। ভেবেছিলেন, মাকে বেশ জম্পেশ ‘সারপ্রাইজ’ দেওয়া হবে। কিন্তু ছেলের এমন চমকে মোটেই খুশি হননি যুবকের মা। বিড়াল পুষতে অনেক খরচ। সংসারের যা আর্থিক অবস্থা, তাতে বিড়াল পোষার বিলাসিতা করা উচিত নয় বলে ছেলেকে সাফ জানিয়ে দেন তিনি। বিড়ালটিকে বিক্রেতার কাছে ফেরত পাঠানোরও নির্দেশ দেন যুবকের মা।

এই নিয়ে গত বুধবার মায়ের সঙ্গে একপ্রস্ত উত্তপ্ত বাদানুবাদ হয় যুবকের। তাঁর পরিবারের দাবি, মায়ের কথায় অভিমান হওয়ায় বুধবার রাগ করে বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যান মৌনিক। পথে দুর্ঘটনার কবলে পড়েন তিনি। যদিও পুলিশ জানাচ্ছে গত বৃহস্পতিবার রাত দেড়টা নাগাদ রাস্তায় টহলরত এক পুলিশকর্মী দূরে দেখতে পান নেতাজি সুভাষচন্দ্র বোস রোডের ওপর এক ফ্লাইওভারে ওই যুবক ঝুঁকিপূর্ণভাবে দাঁড়িয়ে আছেন। দ্রুত তাঁকে আটকাতে ওই পুলিশকর্মী এগিয়েও যান। কিন্তু তার আগেই ওই যুবক নিচে ঝাঁপ দেন। আহত রক্তাক্ত অবস্থায় মৌনিককে উদ্ধার করে গোকুলদাস তেজপাল হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ।

বিড়ালের জন্য একরাশ অভিমান নিয়ে ছেলের এমন হঠকারী প্রাণঘাতী পদক্ষেপে অবশ্য মন গলেছে তাঁর মায়ের। পার্সিয়ান বিড়ালটিকে নিয়ে হাসপাতালের বাইরে ঠায় বসে আছেন তিনি। ছেলের জ্ঞান ফেরার অপেক্ষায় প্রহর গুনছেন মা। ঠিক করেছেন ছেলের জ্ঞান ফিরলেই তিনি জানিয়ে দেবেন, পোষ্য বিড়ালটিকে বাড়িতে রাখতে তাঁর এতটুকু আপত্তি নেই।


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button