SciTech

আবিষ্কার হল ১ লক্ষ বছর আগের ৫ মানুষের পদচিহ্ন

১ লক্ষ বছর আগে যে সেখানে মানুষের উপস্থিতি ছিল তা প্রমাণিত হল নতুন আবিষ্কারে। যা কার্যত ওই ভূখণ্ডের ইতিহাস বদলে দিল।

পৃথিবীর বুকে মানুষের পাদচারণা শুরু হল কবে থেকে এবং কোথায়? এ প্রশ্নের উত্তর খোঁজা এখনও অব্যাহত। কারণ নতুন নতুন জায়গায় মানুষ বা হোমো স্যাপিয়েন্স-এর পদচিহ্ন নিরন্তর পাওয়া যাচ্ছে। আর তার বয়স নির্ধারণ করার পর তা এই খোঁজে নতুন আলো নিক্ষেপ করছে।

এভাবেই ৪ দেশের এক যৌথ প্রত্নতাত্ত্বিক দলের হাতে এসে পড়ল ১ লক্ষ বছর পুরনো ৫ জন মানুষের পদচিহ্ন। যা পাওয়া গিয়েছে সমুদ্রের কাছাকাছি। এই ৫ জনের মধ্যে ১ শিশুও ছিল।

মরক্কো, ফ্রান্স, জার্মানি ও স্পেনের যৌথ প্রত্নতাত্ত্বিক দলের সদস্যরা মরক্কোর ল্যারেশ উপকূলের কাছে কাজ করছিলেন। সেখানেই তাঁরা সমুদ্রের ধার ঘেঁষে মানুষের পদচিহ্ন পান।

এমন এক আবিষ্কার তাঁদের উৎসাহিত করে তোলে। তাঁরা জায়গাটি ঘিরে ভাল করে পরীক্ষা করে এটা বুঝতে পারেন যে এ পদচিহ্ন ১ লক্ষ বছর পুরনো। এই প্রথম উত্তর আফ্রিকায় ১ লক্ষ বছর পুরনো মানব অস্তিত্বের খোঁজ মিলল।

গবেষকেরা মনে করছেন এই ৫ জনের দলটি খাবারের খোঁজেই সমুদ্রের ধারে ঘুরে বেড়াচ্ছিল। হয়তো তারা সামুদ্রিক খাবার কিছু খুঁজছিল।

নেচার পত্রিকায় এই গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে। যা আফ্রিকায় মানুষের প্রথম পাদচারণার ইতিহাসে এক নতুন অধ্যায় জুড়ে দিল। উত্তর আফ্রিকায় এত পুরনো মানব অস্তিত্বের খোঁজ এর আগে পাওয়া যায়নি। প্রসঙ্গত সমুদ্রের ধারের পাথুরে জমিতে লক্ষ বছরের পুরনো এই পদচিহ্নগুলি কিন্তু এখনও যথেষ্ট পরিস্কার।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button