Lifestyle

গয়না নেই, বিয়ের পোশাকে সুতোর কাজে স্বর্গীয় পিতার চিঠি

বিয়ের দিনটা হয়তো একটি মেয়ের জীবনে সবচেয়ে বেশি সাজের দিন। সেখানে এ তরুণীর পরনে জায়গা করে নিল পরলোকগত পিতার একটি চিঠি।

বিয়েটা হয়েছে খুব ধুমধাম করেই। বর বেশে তরুণ তাঁর রাজকীয় পোশাকে ত্রুটি রাখেননি। বিয়ের ভেন্যুও ছিল তাক লাগিয়ে দেওয়ার মত। রাজস্থানের খিমসার কেল্লায় বিয়ে হয় সুবন্যা ও আমন কালরার।

সুবন্যার এই বিয়ের ছবি ও ভিডিও নেটিজেনদের অনেকের চোখে জল এনে দিয়েছে। কারণ লাল পোশাকে সুবন্যা বিয়ের দিন কোনও গয়না পরেননি। ২৭ বছরের তরুণীর গায়ে একটা কুচোও গয়না ছিলনা। তবে ছিল টকটকে লাল পোশাক।

স্লিভলেস পোশাকে ছিল আধুনিকতার ছাপ। মাথার পিছনে ছিল গাঢ় লাল রঙের ভেল। আর এই ভেলের দিকেই নজর ছিল সকলের। বলা ভাল অবাক নজর পড়েছিল সকলের। অবাক নজর পড়াটাই স্বাভাবিক। কারণ ভেলের ওপর সুতো দিয়ে সেলাই করা ছিল তাঁর বাবার একটি মন ছুঁয়ে যাওয়া চিঠি।

যে কোনও বাবার জন্যই তাঁর মেয়ের বিয়ের দিনটা হয় বিশেষ। মেয়ের জন্যও তাই। কিন্তু সুবন্যার বাবার সে সুযোগ হয়নি। তিনি কিছুদিন আগেই মারা যান।

মেয়ে বাবার চিঠিটা বুকে আঁকড়ে রেখেছিলেন। বাবা নেই। কিন্তু যাতে তাঁর বিয়েতে বাবাকে সর্বক্ষণ পেতে পারেন সঙ্গে তাই তাঁর বিয়ের পোশাকেই তিনি রেখেছিলেন বাবার চিঠি। তাও সুতোর কাজে অতি দক্ষতার সঙ্গে।

এই ভাবনা যেমন নেটিজেনদের মন কেড়েছে, তেমনই বাবা ও মেয়ের এই টান তাঁদের অনেকের চোখের কোণে অজান্তেই জল এনেছে।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.