Lifestyle

খাওয়ার পাশাপাশি রুবি ডিভাকে দেখতে লাইন পড়ছে রেস্তোরাঁয়

ভারতে রেস্তোরাঁর অভাব নেই। কিন্তু সেসব রেস্তোরাঁয় গেলে পুরুষ বা মহিলা ওয়েটার এসে আপনাকে পছন্দের খাবার জেনে পরিবেশন করবেন। কিন্তু সে দিনের শেষের শুরু হয়ে গেল।

মাঝেমধ্যে বাড়ির খাবার মুখে রোচেনা। অনেকে আছেন যাঁরা ছুটি পেলে স্বাদ বদলাতে রেস্তোরাঁয় খাওয়া পছন্দ করেন। কেউ বা সপ্তাহান্তে পরিবার নিয়ে হাজির হন রেস্তোরাঁয়। ফলে ভারতে রেস্তোরাঁর চাহিদা রয়েছে।

রেস্তোরাঁয় গিয়ে মেনু দেখে পছন্দের খাবার অর্ডার দেওয়ার জন্য থাকেন ওয়েটার। পুরুষ বা মহিলা ওয়েটার এসে হাজির হন আপনার কাছে। জেনে নেন কি খেতে চান। সে খাবার পরিবেশনও করেন ওয়াটাররা।

এটাই দেখে অভ্যস্ত সকলে। কিন্তু সেই ধারনা এবার বদলানোর সময় এসে গেল। চেন্নাই, জয়পুর ও নয়ডার পর ভারতে ফের এমন এক রেস্তোরাঁর জন্ম হল যেখানে ওয়াটাররা আর রক্তমাংসের মানুষ নন, বরং ধাতুর তৈরি বুদ্ধিমান রোবট।

লখনউ শহরে এমনই একটি রেস্তোরাঁ তৈরি হয়েছে। এই রোবট রেস্তোরাঁয় রোবটরাই গ্রাহকদের পরিষেবা দিয়ে থাকে। লখনউয়ের আলিগড়ে এই রেস্তোরাঁর নাম ‘দ্যা রোবট রেস্টুরেন্ট – দ্যা ইয়েলো হাউস’।


Lifestyle News
জয়পুরের রোবট রেস্তোরাঁ, ছবি – সৌজন্যে – ফেসবুক – @jpr.yellowhouse

এখানে ২ জন ওয়েটার রয়েছে। রুবি এবং ডিভা। উজ্জ্বল হলুদ আর সাদা এই ২ রোবট সব সামাল দিচ্ছে মাত্র ২ থেকে ৩ ঘণ্টার চার্জে। রোবট ২টি ২ থেকে ৩ ঘণ্টার চার্জ পেলে ১২ ঘণ্টা নিরলস পরিশ্রম করে যেতে পারে।

ভারতের অন্য রেস্তোরাঁগুলির জন্যও এ এক নতুন ভাবনা। যা তারা যে কোনও সময় কাজে লাগাতে পারে। যদিও বুদ্ধিমান রোবটরাই যদি আগামী দিনে দেশে রেস্তোরাঁ শিল্পের ভবিষ্যৎ হয় তাহলে বহু মানুষ কিন্তু চাকরি হারাতে চলেছেন। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button