Lifestyle

বিশ্ব সেরার তালিকায় দেশের ৩টি মিষ্টি, বাংলার কোন মিষ্টি জায়গা পেল

বিশ্বের সেরা ৫০টি মিষ্টির তালিকা প্রকাশিত হয়েছে। যে তালিকায় ভারতের ৩টি মিষ্টি জায়গা পেয়েছে। সে তালিকায় মিষ্টির জন্য বিখ্যাত বাংলার কোনও মিষ্টি আছে কিনা দেখে নিন।

ভারতে মিষ্টির কথা এলে অবশ্যই প্রথমে নাম আসে পশ্চিমবঙ্গের। বাংলার মিষ্টি দই বা রসগোল্লার নাম সকলে জানলেও বাংলা যে মিষ্টি প্রেমী এবং এখানে বহু ধরনের মিষ্টি পাওয়া যায় তা সারা ভারত তো বটেই, এমনটি সারা বিশ্বের জানা।

বাংলার ছানার মিষ্টির কদর তো বিশ্বজোড়া। এবার বিভিন্ন দেশের স্ট্রিট ফুড হিসাবে পাওয়া যাওয়া নানা মিষ্টির মধ্যে সেরা ৫০টির নাম সামনে এল।

ক্রোয়েশিয়ার টেস্টঅ্যাটলাস এই তালিকা প্রস্তুত করেছে। সেই তালিকায় বিভিন্ন দেশের মিষ্টির সঙ্গে ভারতেরও ৩টি মিষ্টি নিজের জায়গা করে নিয়েছে। আর মিষ্টি যখন তখন বাংলার কোন মিষ্টি সেই তালিকায় ঢুকল তা নিয়ে একটা কৌতূহল তো থাকেই।

তালিকায় প্রথম স্থানে রয়েছে পর্তুগালের পাস্তেল ডি নাতা নামে একটি মিষ্টি। ভারতীয় একটি মিষ্টির স্থান তালিকায় ১৪ নম্বরে রয়েছে। মাইসোর পাক নামে এই মিষ্টি কর্ণাটকের মাইসুরুর বিখ্যাত মিষ্টি। এটি তৈরি হয় প্রচুর ঘি, বেসন, চিনি এবং এলাচ দিয়ে।


তারপরই রয়েছে ভারতের আর এক মিষ্টি কুলফি। যা স্থান পেয়েছে ১৮ নম্বরে। কুলফিকে ভারতীয় আইসক্রিম বলা হয়ে থাকে। কুলফি ভারতে প্রথম আসে মোঘল আমলে। সেই থেকে এটি অত্যন্ত জনপ্রিয় দুগ্ধজাত খাবার হলেও তার সঙ্গে সরাসরি বাংলার কোনও যোগ নেই।

Food
কুলফি ফালুদা, ছবি – সৌজন্যে – উইকিমিডিয়া কমনস

ভারতীয় মিষ্টি হিসাবে তালিকায় শেষ যে মিষ্টিটি জায়গা পেয়েছে তার নাম কুলফি ফালুদা। কুলফি ফালুদাতেও কুলফি লাগেই। তবে শুধু কুলফি নয়, তার ওপর দেওয়া থাকে সেমাই, নানারকম শুকনো ফল, কিছু এসেন্স।

সব মিলিয়ে এটিও একটি উপাদেয় মিষ্টি গোত্রীয় পদ হলেও তার সঙ্গেও সরাসরি বাংলার কোনও যোগ নেই। ফলে এই তালিকায় ভারতের ৩টি মিষ্টি জায়গা পেলেও বাংলার আদি কোনও মিষ্টির জায়গা হয়নি।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button