Kolkata

দুর্গাপুজো নিয়ে ভুয়ো খবর, পরপর গ্রেফতার

দুর্গাপুজো নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো খবর ছড়ানোর অভিযোগের তদন্তে তৎপর পুলিশ। পরপর গ্রেফতার।

কলকাতা : দুর্গাপুজো নিয়ে ভুয়ো খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়ানো হচ্ছে। একথা ২ দিন আগেই মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন। জানিয়েছিলেন রাজ্যসরকার দুর্গাপুজো নিয়ে কোনও বৈঠকই করেনি। সেখানে সোশ্যাল মিডিয়ায় উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ভুয়ো খবর ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা হচ্ছে। আর তা ইচ্ছাকৃতভাবেই করা হচ্ছে। তাই যে বা যারা এই খবর ছড়াচ্ছে তাদের চিহ্নিত করে প্রকাশ্যে যেন কান ধরে ওঠবোস করায় পুলিশ। সেই নির্দেশও দেন মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পরই পুলিশের সাইবার ক্রাইম প্রতিরোধ শাখা উঠেপড়ে লাগে এই দুর্গাপুজো সংক্রান্ত ভুয়ো পোস্ট কারা ছড়াচ্ছে তা খুঁজতে। বুধবার বরানগর থেকে প্রভুজিত আচার্য ও ঘোলা থেকে রাজু বিশ্বাস নামে ২ যুবককে গ্রেফতার করা হয়। এদের ব্যারাকপুর কমিশনারেটের আওতায় গ্রেফতার করা হয়। এবার আরও ২ জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ। ধৃতদের নাম চন্দ্র মণ্ডল ও শুভজিত ঘোষ। এদের গ্রেফতার করেছে কলকাতা পুলিশ।


পড়ুন আকর্ষণীয় খবর, ডাউনলোড নীলকণ্ঠ.in অ্যাপ

মুখ্যমন্ত্রী আগেই জানিয়েছিলেন একটি ভুয়ো পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়ানো হচ্ছে যে করোনার কারণে দুর্গাপুজোর সময় পঞ্চমী থেকে পুরো পুজোয় রাতে কার্ফু জারি থাকবে। ফলে মানুষ বাইরে বার হতে পারবেন না। এই পোস্ট যে ভুয়ো তা জানিয়ে রাজ্য পুলিশের তরফে একটি পোস্ট করা হয়। সেখানে স্পষ্ট করে দেওয়া হয় যে এমন পোস্ট ভুয়ো। এটা ফেক পোস্ট।

দুর্গাপুজোর সময় পঞ্চমীর দিন থেকে রাতে কার্ফু জারি করা হবে বলে যে পোস্ট ঘুরপাক খাচ্ছে তা ফেক নিউজ বা ভুয়ো খবর বলে জানিয়ে দেয় রাজ্য পুলিশ। পুলিশের তরফে সোশ্যাল মিডিয়ায় জানানো হয় যে খবর ঘুরে বেড়াচ্ছে দুর্গাপুজো নিয়ে তেমন কোনও সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়নি। এমন খবর ফরওয়ার্ড করবেননা। করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রাজ্য পুলিশ তাদের ট্যুইটার হ্যাশট্যাগ ফেকনিউজঅ্যালার্ট-এ এই বিষয়ে সকলকে সতর্ক করে।

মুখ্যমন্ত্রী পুলিশকে নির্দেশ দেন যে বা যারা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে একাজ করছে তাদের চিহ্নিত করে কান ধরে ওঠবোস করাতে। তিনি বলেন এমনও ভুয়ো খবর ছড়ানো হচ্ছে যে দুর্গাপুজো নাকি ব্যান করা হচ্ছে। একথা প্রমাণ করতে পারলে তিনি নিজে কান ধরে ওঠবোস করবেন। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, যারা কখনও দুর্গা, কালী বা হনুমানের পুজো করেনি তারা এখন পুজো নিয়ে কথা বলছে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button