National

শিবরাত্রিতে কেদারনাথ বদ্রীনাথ নিয়ে বড় ঘোষণা

উত্তরাখণ্ডে হিমালয়ের সবচেয়ে উঁচু তীর্থস্থান হল কেদারনাথ মন্দির। বছরের ৬ মাস মন্দির ঢাকা থাকে বরফে। ফলে সেখানে পুজোর প্রশ্ন উঠছে না। সে সময় কেদারনাথ মন্দিরের বিগ্রহ থাকেন রুদ্রপ্রয়াগ জেলার উখি মঠের ওমকারেশ্বর মন্দিরে। তারপর গ্রীষ্মকালে ফের যখন বরফ গলে। তখন কেদারনাথ মন্দিরের ফিরে যায় বিগ্রহ। পুণ্যার্থীদের জন্য খুলে যায় মন্দিরের দরজা।

চলতি বছরে কবে খুলবে কেদারনাথের দরজা। সেকথা প্রতি বছরই মহা শিবরাত্রির দিন ঘোষণা করা হয় ওমকারেশ্বর মন্দির থেকে। এবারও তার অন্যথা হলনা। সোমবার মহা শিবরাত্রির পুণ্য লগ্নে ঘোষণা করা হল আগামী ৯ মে সাধারণ মানুষের জন্য কেদারনাথ মন্দিরের দরজা খুলে যাবে। ভোর ৫টা ৩৫ মিনিটে খুলবে মন্দিরের প্রধান ফটক। এদিন যখন কেদারনাথ মন্দিরের দরজা এ বছর কবে খুলবে তার ঘোষণা হচ্ছিল তখন চারপাশে ধ্বনিত হচ্ছিল বৈদিক মন্ত্র ও শ্লোক।

Badrinath Temple
বদ্রীনাথ মন্দির, ছবি – সৌজন্যে – উইকিপিডিয়া

বদ্রীনাথ মন্দিরের দরজাও খুলছে। তা খুলছে কেদারনাথ মন্দিরের দরজা খোলার ১ দিন পর। অর্থাৎ ১০ মে। কেদারনাথ, বদ্রীনাথ, গঙ্গোত্রী ও যমুনোত্রী এই ৪ তীর্থক্ষেত্রকে একসঙ্গে বলা হয় চারধাম। প্রতি বছরই অক্টোবর-নভেম্বর মাসে বন্ধ হয়ে যায় এই ৪ মন্দিরের দরজা। বরফে ঢেকে যায় এলাকা, মন্দির। ৬ মাস বন্ধ থাকে মন্দির। তারপর এপ্রিল-মে মাসে ফের খোলে মন্দিরের দরজা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.