Feature

কাজিরাঙার জঙ্গলে অনেকেই গেছেন, এই নামের পিছনের কাহিনি চোখে জল আনতে পারে

কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানের নাম নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে না। এই কাজিরাঙা নামটার পিছনে কিন্তু লুকিয়ে আছে এক করুণ কাহিনি। যা অনেকের চোখে জল আনতে পারে।

ভারতের একশৃঙ্গ গণ্ডারের জন্য বিখ্যাত কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যান। বলা হয় বিশ্বের দুই তৃতীয়াংশ গণ্ডার রয়েছে শুধু কাজিরাঙাতেই। এছাড়া এই জঙ্গলে আরও অনেক পশুপাখি রয়েছে। রয়েছে অপার সবুজ প্রকৃতি।

কাজিরাঙার জঙ্গলে অনেকেই বেড়াতে যান। এই কাজিরাঙা জঙ্গলের নাম কাজিরাঙা হওয়ার পিছনে কিন্তু এক কাহিনি কথিত আছে। যা আজও মানুষের মুখে মুখে ঘোরে। সে কাহিনি অনেকের চোখে জল আনতে পারে।

কথিত আছে কার্বি আংলং-এর বাসিন্দা এক তরুণের নাম ছিল কাজি। আর ওখানেরই বাসিন্দা এক তরুণীর নাম ছিল রাঙা। এই ২ তরুণ হৃদয়ের মধ্যে এক প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়।

২ জনই একে অপরের প্রেমে পাগল। কিন্তু তাদের পরিবার থেকে স্থানীয়রা কেউই তাদের সম্পর্ক মেনে নেয়নি। অনেক চেষ্টা করেও কাউকে রাজি করাতে না পেরে একদিন কাজি আর রাঙা একসঙ্গে মনের দুঃখে ওই গহন অরণ্যে প্রবেশ করে।


তাদের ফিরিয়ে আনতে জঙ্গলের আনাচকানাচ খুঁজে দেখেন স্থানীয়রা। কিন্তু ২ জনের দেখা মেলেনি। আর কোনওদিন তারা ওই জঙ্গল থেকে বেরিয়ে আসেনি।

Kaziranga National Park
কাজিরাঙায় বাঘ, ছবি – প্রলয় লাহিরী

এই প্রেমগাথা আজও এখানকার মানুষের মুখে মুখে ঘোরে। এই কাজি আর রাঙার নাম থেকে এই জঙ্গলের নাম হয় কাজিরাঙা বলে মনে করেন অনেকে।

যদিও এই কাজিরাঙা নাম হওয়ার পিছনে আরও একটি ব্যাখ্যাও অনেকে দিয়ে থাকেন। কাজিরাঙা জঙ্গলকে অনেকে লাল ছাগলের জমিও বলে থাকেন।

Kaziranga National Park
ফাইল : কাজিরাঙায় হাতির দল, ছবি – আইএএনএস

এখানে ছাগল বলতে তাঁরা হরিণকেও ব্যাখ্যা করে থাকেন। অনেকে মনে করেন স্থানীয় কার্বি ভাষায় কাজি মানে ছাগল। আর রাঙা মানে লাল। সেই থেকেই এই জঙ্গলের নাম কাজিরাঙা।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button