Lifestyle

প্রাচীন প্রথা মেনে বিয়ের পর ৩ দিন বাথরুমে যেতে দেওয়া হয়না স্বামী স্ত্রীকে

বিশ্বজুড়ে কত যে রীতি রেওয়াজ রয়েছে তা হয়তো গুনে শেষ হওয়ার নয়। এমনও এক রীতি রয়েছে যেখানে স্বামী স্ত্রীকে বিয়ের পর ৩ দিন বাথরুমে যেতে দেওয়া হয়না।

বিশ্বজুড়ে বিয়েকে কেন্দ্র করে হাজারো নিয়ম রয়েছে। এক এক জায়গায় এক এক নিয়ম। ২টি পরিবারের মধ্যেও অনেক সময় নিয়ম আলাদা হয়।

বেশ কিছু বিয়ের নিয়ম শুনলে অনেকেই হতভম্ব হয়ে যেতে পারেন। কিন্তু স্থানীয়ভাবে চলে আসা সে নিয়ম যতই কঠিন হোক মেনে নেয় প্রজন্মের পর প্রজন্ম। এটাই মজা। এটাই পরম্পরা।

এমনই এক প্রাচীন পরম্পরা চালু রয়েছে ইন্দোনেশিয়ার একটা অংশে। সেখানে বিয়ে শেষ হলেই শুরু হয় স্বামী স্ত্রীর ৩ দিনের হানিমুন। এ হানিমুন অবশ্য কোথাও বেড়াতে গিয়ে নয়। বরং একটি ঘরে বন্দি থেকে। এটাই সেখানকার প্রাচীন প্রথা।

নিয়মটা হল বিয়ের পরই সদ্যবিবাহিত স্বামী স্ত্রীকে একটি ঘরে বন্দি করে দেওয়া হয়। সেখানেই তাঁদের একসঙ্গে থাকতে হয় ৩ দিন। ৩ দিন মানে ৩ দিন দিবারাত্র। কখনওই দরজা খোলা হবেনা।

এই অব্ধিও সব ঠিক ছিল। কিন্তু যে ঘরে তাঁদের আটকে রাখা হয় সে ঘরে বাথরুম থাকেনা। আবার দরজা খুলে তাঁদের বাথরুমে যেতেও দেওয়া হয়না। ৩ দিন বাথরুম ব্যবহার না করে কাটাতে হয় তাঁদের।

অনেকে এই প্রথাকে আদপে অত্যাচার বলে ব্যাখ্যা করেন। তবে ওই অঞ্চলের মানুষের বিশ্বাস এতে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে সম্পর্ক প্রগাঢ় হয়। তাঁদের যে সন্তান জন্ম নেয় সেও খুব স্বাস্থ্যবান হয়।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.