National

অতিরিক্ত ভারী হয়ে গেছে একটি কামরা, মাঝপথে থেমে গেল ট্রেন

কালকা মেল ছুটে যাচ্ছিল গন্তব্যের দিকে। কিন্তু মাঝপথে আচমকাই তা থমকে দাঁড়িয়ে পড়ে। ট্রেন আর এগোতে পারছিলনা। কেন এমন হল তা দেখতে নেমে পড়লেন চালক।

ভারতের বেশ জনপ্রিয় একটি ট্রেন কালকা মেল। যা ছুটে যাচ্ছিল তার গন্তব্যের দিকে। ট্রেন এক বিপুল পরিমাণ ওজন কিন্তু টেনে নিয়ে যায় সাবলীল গতিতে। এতটাই ক্ষমতা হয় ট্রেনের ইঞ্জিনের। কিন্তু সেই ইঞ্জিনও পেরে উঠল না। আর এগোতে না পারায় শক্তি হারিয়ে মাঝপথে থেমে যায় ট্রেনটি।

যাত্রীরা বুঝেই উঠতে পারেননা কেন এতটা সময় ট্রেনটি দাঁড়িয়ে আছে? ট্রেনের চালক সহ কয়েকজন রেলকর্মী প্রতিটি কামরা ও যন্ত্রাংশ খতিয়ে দেখতে থাকেন। অবশেষে জানা যায় কারণ।

দেখা যায় কালকা মেলের পার্সেল কোচটি অসম্ভব ভারী হয়ে গেছে। এত ভারী একটি কামরা টেনে নিয়ে যাওয়ার ক্ষমতা ট্রেনের ইঞ্জিনের নেই। তাই একটি কামরার ওজন টানতে গিয়ে থমকে যায় ট্রেনটি।

পার্সেল কামরায় প্রবেশ করে এরপর বেশ কিছু ওজন নামিয়ে ফেলা হয়। দেখা হয় পার্সেল কামরার ওজন যা রইল তা ট্রেন টেনে নিয়ে যেতে পারবে কিনা? সবদিক থেকে নিশ্চিন্ত হওয়ার পর ফের ট্রেন যাত্রা শুরু করে।


ওজনের জন্য এভাবে ট্রেন দাঁড়িয়ে পড়ার ঘটনা বিরল। তবে এমন এক ঘটনায় যাত্রীদের দুর্ভোগ চরমে ওঠে। ১ ঘণ্টার ওপর ট্রেনটি ভারী বইতে না পেরে দাঁড়িয়ে পড়ে। দাঁড়িয়ে পড়ে উত্তরপ্রদেশের ইটাওয়া স্টেশনে।

ইটাওয়ায় এখন তাপপ্রবাহ চলছে। ফলে ওই ১ ঘণ্টায় মহিলা, শিশু থেকে অন্য যাত্রীদের গরমে নাজেহাল অবস্থা হয়। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button