National

রেল কি বেসরকারি হাতে যাচ্ছে, স্পষ্ট উত্তর দিলেন রেলমন্ত্রী

রেল বেসরকারিকরণ হওয়া নিয়ে নানা কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে। অনেকেই বলছেন রেল বেসরকারি হওয়া এখন সময়ের অপেক্ষা। এই প্রশ্নের স্পষ্ট উত্তর দিলেন রেলমন্ত্রী।

রেল কী বেসরকারি নিয়ন্ত্রণে যেতে চলেছে? রেল কি বেসরকারি হাতে তুলে দিতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার? বিরোধীদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষও এমন একটা আশঙ্কা মাঝেমধ্যেই করে থাকেন। এমনকি খোদ রেলের কর্মীরাও এমন আশঙ্কা করে থাকেন।

বিষয়টি রাজ্যসভাতেও পৌঁছয়। যেখানে বিষয়টিতে কেন্দ্রীয় সরকারের অবস্থান স্পষ্ট করে দিলেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। রেলমন্ত্রী এদিন স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, ভারতীয় রেল একটি অত্যন্ত জটিল সংস্থা। সেইসঙ্গে রেলের একটি সামাজিক দায়বদ্ধতাও রয়েছে। তাই রেল বেসরকারি হাতে যাচ্ছেনা। এমন কোনও পরিকল্পনা কেন্দ্রের নেই।

রেলমন্ত্রী আরও জানান, কোনও রাজ্যকে বঞ্চিত করা হচ্ছেনা। বরং কেন্দ্র চায় রেল পরিষেবা আরও উন্নত করতে রাজ্যের সহযোগিতা। রেল পরিষেবা আরও ছড়িয়ে দিতে যাতে রেলের জমি পেতে সুবিধা হয় সেদিকেও রাজ্যসরকারগুলিকে নজর দিতে অনুরোধ করেন তিনি।

রেলমন্ত্রী খতিয়ান তুলে ধরে দাবি করেন, ২০১৪ সালের আগে বছরে রেললাইন বর্ধিত করার পরিমাণ ছিল গড়ে ১ হাজার ৫২০ কিলোমিটার। যেখানে এখন ৩ হাজার কিলোমিটার রেলপথ বর্ধিত করা হচ্ছে প্রতি বছর।

রেলমন্ত্রী জানান, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভারতীয় রেলের ডিজেল নির্ভরতা মুছে দিয়ে সম্পূর্ণ বিদ্যুৎ নির্ভর করে তোলার দিশা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর সেই দিশাকে বাস্তবায়িত করতে উদ্যোগ নিয়েছে রেলমন্ত্রক।

Ashwini Vaishnaw
ফাইল : অশ্বিনী বৈষ্ণব, ছবি – আইএএনএস

বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকার ২০১৪ সালে দেশে ক্ষমতায় আসার পর থেকে এখনও প্রায় ৫০ হাজার কিলোমিটার রেলপথে বিদ্যুৎ ব্যবহার করে রেল চালানোর বন্দোবস্ত করা হয়েছে বলে রাজ্যসভায় জানান রেলমন্ত্রী। অর্থাৎ ওভারহেড বিদ্যুতের তার যুক্ত করা হয়েছে রেল চালনার জন্য। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.