National

খাদি আর বৈঠকির সঙ্গতে এখানে হোলি ২ মাসের

ভারতে হোলির বৈচিত্র্য বিচিত্র। স্থানভেদে হোলিও যায় বদলে। এই ভারতেই এমনও স্থান রয়েছে যেখানে হোলি পালিত হয় ২ মাস ধরে।

ভারতের সংস্কৃতি বিচিত্র। নানা ভাষা, নানা পরিধানের দেশ ভারত। আর প্রধানত ধর্মকে কেন্দ্র করে বিস্তারলাভ করেছে ভারতীয় সংস্কৃতি। দোল আসন্ন। দোলকে ঘিরেও ভারতে বিচিত্র সংস্কৃতির উদ্ভব।

উত্তরাখণ্ডে দোল উপলক্ষে নানান অনুষ্ঠান চলে ২ মাসের বেশি সময় ধরে। বিশেষত কুমায়ুন জেলায়। হোলি মানেই সঙ্গীত। আর হোলিকে কেন্দ্র করে ভক্তেরা পুজো করেন গণেশ এবং পশুপতিকে। তবে হোলিতে যে সঙ্গীত পরিবেশন করা হয় তা রাধাকৃষ্ণের ব্রজলীলাকে কেন্দ্র করে।

কুমায়ুনে ২ ধরনের হোলির অনুষ্ঠান পালিত হয়। এর ভিতর একটি অনুষ্ঠানের নাম খাদি হোলি। আর অপরটির নাম বৈঠকি হোলি।

বৈঠকি হোলি পালিত হয় বাড়িতে এবং মন্দিরে। ইতিহাস বলছে পনেরোশো শতক থেকে কুমায়ুনে পালিত হচ্ছে বৈঠকি হোলি। বর্তমানেও বৈঠকি হোলি সারা কুমায়ুন জুড়েই পালিত হচ্ছে।

কুমায়ুনের একাংশে হোলির অনুষ্ঠান পালিত হয় প্রতি বছর পৌষ মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে। আর সেইসঙ্গে আয়োজিত হয়ে থাকে সঙ্গীতানুষ্ঠান।

বৈঠকি হোলিতে নারী-পুরুষ পৃথকভাবে জমায়েত হলেও বৈঠকি হোলির অন্যতম অঙ্গ গান ও নাচ। নানা রাগের সঙ্গীত পরিবেশিত হয় বৈঠকি হোলিতে।

সেইসব গান মূলত ভক্তিভাবের। আর যাঁরা সঙ্গীত পরিবেশন করেন তাঁদের অনেকেরই পেশা হোলির মরশুমে গান গাওয়াটা। বাড়ি বাড়ি গিয়ে সঙ্গীত পরিবেশন করেন তাঁরা।

কুমায়ুনে হোলির অন্যতম বৈশিষ্ট্য হল অনেকক্ষেত্রে মেয়েরা পুরুষালি পোশাকে সাজগোজ করেন। এরপর পরিবারের কোনও সদস্যকে অবিকল অনুকরণ করে দেখান। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.