Health

টিকা নিয়েও রেহাই মেলেনি, দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ে বলল আইসিএমআর

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ যে কতটা ভয়ংকর জায়গায় পৌঁছেছিল তা চাক্ষুষ করেছে গোটা দেশ। এই সময় নিয়ে বেশ কিছু চমকপ্রদ তথ্য জানাল আইসিএমআর।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউতে যতজন সংক্রমিত হয়েছেন দেশে তাঁদের মধ্যে ৮০ শতাংশের বেশি সংক্রমিতই করোনার ডেল্টা প্রকারের শিকার হয়েছিলেন। দেশে দ্বিতীয় ঢেউতে যে ডেল্টা প্রকারের বিশাল ভূমিকা রয়েছে তা শুক্রবার কার্যত স্বীকার করে নিল আইসিএমআর।

আইসিএমআর জানিয়েছে ডেল্টা প্রকার এতটাই ভয়ংকর রূপ নিয়েছিল ভারতে যে যাঁরা টিকার একটি ডোজ নিয়ে রেখেছিলেন তাঁদেরও রেহাই দেয়নি ডেল্টা। তাঁরাও অনেকে সংক্রমণের শিকার হয়েছিলেন।

তবে আইসিএমআর এও জানিয়েছে টিকা নিয়েও সংক্রমণের হাত থেকে রেহাই না মিললেও টিকার জোরে এঁদের মধ্যে অধিকাংশ মানুষকেই হাসপাতালে পৌঁছতে হয়নি। টিকা নেওয়া মানুষের ক্ষেত্রে মৃত্যুও ছিল অনেক কম।

আইসিএমআর জানিয়েছে, দ্বিতীয় ঢেউতে দেশের ৮৬ শতাংশই ডেল্টায় আক্রান্ত ছিলেন। ৯ শতাংশ মানুষকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছিল। ০.৪ শতাংশ মানুষের মৃত্যু হয়েছিল।

এদিকে যতজন আক্রান্ত হয়েছিলেন তাঁদের মধ্যে ৭১ শতাংশই ছিলেন উপসর্গযুক্ত। ২৯ শতাংশ আক্রান্তের কোনও উপসর্গ ছিলনা।

উপসর্গ থাকাদের মধ্যে ৬৯ শতাংশেরই জ্বর আসে। গা হাত পায়ে ব্যথা, মাথা ব্যথা ও বমি বমি ভাব ছিল ৫৬ শতাংশের। গলায় ঘা দেখা গেছে ৩৭ শতাংশের মধ্যে।

স্বাদ-গন্ধ হারিয়ে গিয়েছিল ২২ শতাংশের। পেট খারাপ হয়েছিল ৬ শতাংশের। ৬ শতাংশের মধ্যে শ্বাস কষ্ট দেখা গিয়েছে। এছাড়া ১ শতাংশ উপসর্গযুক্ত আক্রান্তের মধ্যে দেহে লালচে ভাব দেখা গিয়েছিল।

বিশ্বের ১১১টি দেশে এখন ডেল্টা প্রকার ছড়িয়ে পড়েছে। করোনার তৃতীয় ঢেউতে এই ডেল্টা প্রকারই সবচেয়ে ভয়ংকর হতে চলেছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More
Back to top button