Health

কমছে টিকা নেওয়ার ভয়

দুরন্ত গতিতে কমছে টিকা গ্রহণে ভয়। তবে এখনও ১০০ জনে কত জন টিকা গ্রহণ করতে ভয় পাচ্ছেন সে খতিয়ান সামনে এল।

নয়াদিল্লি : অতিমারির প্রকোপে এখনও কাবু বিশ্বের অনেকগুলি দেশ। বিধ্বস্ত আমেরিকা, ইউরোপ মহাদেশ। নতুন বছরের শুরুর দিকে ভারতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা কমতে শুরু করেছিল।

ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে অনেকটাই নিচে নেমে যায় কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা। তবে একমাসের মধ্যেই আবার বেড়ে উঠেছে এই সংখ্যা। করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার পর ১ লক্ষও একদিন পার করেছে দৈনিক সংক্রমণ।

এমন অবস্থার সাথে মোকাবিলা করার জন্য সাবধানতা অবলম্বন করার সঙ্গে সঙ্গে টিকাকরণের দিকেই জোর দিচ্ছে দেশের সরকার। ৪৫ বছরের উর্ধ্বে সকল ব্যক্তিই টিকা নিতে পারবেন। এই ব্যবস্থা চালু হয়েছে ১ এপ্রিল থেকে।

টিকাকরণ প্রক্রিয়া যখন শুরু হয় তখন বেশিরভাগ মানুষের মধ্যেই টিকা নেওয়ার প্রতি একটা অনীহা কাজ করছিল। অনেকে ভয়ও পাচ্ছিলেন। এখনও যে পাচ্ছেন না এমনটাও নয়। এমনকি অনেক স্বাস্থ্যকর্মীও টিকা নিতে চাইছিলেন না শুরুর দিকে।

তবে করোনার প্রকোপ আবার বিপুল পরিমাণে বেড়ে যাওয়ায় মানুষের মধ্যে টিকা নেওয়ার প্রবণতা এখন বৃদ্ধি পাচ্ছে দিন কে দিন। এখন প্রায় ৭৭ শতাংশ মানুষ টিকাকরণ প্রক্রিয়ায় স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে অংশগ্রহণ করতে চাইছেন।

অনেকে ইতিমধ্যেই সফল ভাবে টিকার ২টি ডোজ সম্পূর্ণও করে ফেলেছেন। অনেকে একটা নিয়ে দ্বিতীয় ডোজ সময় হলে নেবেন বলে অপেক্ষায়।

এখন টিকাকরণ কেন্দ্রগুলিতে সকাল থেকে লাইনও নজর কাড়ছে। যা একটাই বার্তা স্পষ্ট করছে। মানুষ ক্রমশ টিকাকে ভয় পাওয়া ছেড়ে এগিয়ে আসছেন টিকা নিতে।

২ মাস আগেও যেখানে দেশের সিংহভাগ মানুষ টিকা নেবেন কিনা ভেবে দেখছিলেন। অথবা নেবেন না বলে পরিজনদের জানিয়ে দিয়েছিলেন, তাঁরাই এখন ছুটছেন টিকা নিতে।

পরিসংখ্যান বলছে দেশের এখন মাত্র ২৩ শতাংশ মানুষ টিকা নিতে ভয় পাচ্ছেন। তবে প্রতিদিনই প্রচুর সংখ্যক মানুষ টিকা গ্রহণ করতে এগিয়ে আসছেন। ফলে এই সংখ্যা দ্রুত আরও কমবে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

দেশে টিকাদান প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করেছেন আজ অবধি প্রায় সাড়ে ৮ কোটি মানুষ। তারমধ্যে রয়েছেন বেশ কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব। তাঁদের এভাবে টিকা নিতে এগিয়ে আসায় সাহস পাচ্ছেন সাধারণ মানুষরাও।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ক্ষেত্রেও ইতিবাচক দিকটিই উঠে আসছে। টিকাগ্রহণকারী ব্যক্তিদের মধ্যে মাত্র ২ শতাংশ মানুষ জানিয়েছেন তাঁদের শরীরে গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

বাকিদের মধ্যে প্রায় ৫২ শতাংশ মানুষ বলেছেন তাঁরা কোনও ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া অনুভব করেননি। এই কারণগুলির ফলে টিকা নেওয়ার অস্বস্তি আস্তে আস্তে মানুষের মন থেকে দূর হচ্ছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button