Health

অপেক্ষার অবসান, দেশে ২টি টিকার জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োগে ছাড়

সব অপেক্ষার অবসান। নতুন বছরেই এল সুখবর। ভারতে ২টি করোনা প্রতিষেধক টিকার জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োগে ছাড়পত্র দিল ডিজিসিআই।

নয়াদিল্লি : কবে ভারতে শুরু হবে টিকাকরণ? কবে ভারতে কোনও টিকা টিকাকরণের ছাড়পত্র পাবে? এপ্রশ্ন ছিল গোটা ভারতবাসীর। করোনা নিয়ে ওষ্ঠাগত জীবন থেকে মুক্তি পেতে টিকা ছাড়া গতি নেই। একথা বারবার মনে করিয়ে দিয়েছেন বিশেষজ্ঞেরা।

সেই টিকা তৈরির চেষ্টাও চলছিল যুদ্ধকালীন তৎপরতায়। বিশ্বের সঙ্গে ভারতেও সেই চেষ্টায় খামতি ছিলনা। অবশেষে এতদিনের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে ভারতে ছাড় পেল ২টি টিকা। রবিবার ডিজিসিআই এই ছাড়পত্র দিয়েছে।

হায়দরাবাদের ভারত বায়োটেক-এর তৈরি করোনা প্রতিষেধক টিকা কোভ্যাক্সিন এবং পুনের সেরাম ইন্সটিটিউটের তৈরি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও অ্যাস্ট্রাজেনেকা-র টিকা কোভিশিল্ড-কে একসঙ্গে রবিবার জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োগে ছাড়পত্র দিল ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া বা ডিজিসিআই। ফলে আগামী দিনে এই ২টি টিকা ব্যবহার করা যাবে।

Coronavirus
ভারত বায়োটেকের কোভ্যাক্সিন, ছবি – আইএএনএস

ডিজিসিআই-এর থেকে এই ছাড়পত্র ঘোষণার পরই এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ট্যুইট করে এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানান তিনি।


প্রধানমন্ত্রী বলেন এই সিদ্ধান্ত দেশবাসীকে গর্বিত করেছে। জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োগে ছাড়পত্র মিললেও কবে থেকে এই টিকা প্রদান করা শুরু হবে তা অবশ্য এখনও পরিস্কার করা হয়নি।

ডিজিসিআই-এর ভিজি সোমানি জানান, কোভিশিল্ড ৭০.৪২ শতাংশ কার্যকরী হিসাবে প্রমাণিত হয়েছে। ভারতের তৈরি কোভ্যাক্সিন সুরক্ষিত এবং শক্তিশালী রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করতে সক্ষম বলেও জানিয়েছেন সোমানি।

ভিজি সোমানি আরও বলেন, এতটুকুও সুরক্ষা নিয়ে কোনও প্রশ্ন থাকলে তিনি টিকায় ছাড়পত্র দিতেন না। ১১০ শতাংশ সুরক্ষিত এই ২টি করোনা টিকা। তবে কিছু ক্ষেত্রে টিকাকরণের পর হাল্কা জ্বর, ব্যথা বা অ্যালার্জি প্রায় সব টিকাতেই হয়ে থাকে। ওটা সাধারণ ব্যাপার।

এই ২টি টিকাই ২টি ডোজে সম্পূর্ণ হবে। রাখতে হবে ২ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় বলে জানান সোমানি।

এদিকে টিকা হাতে পাওয়ার পর প্রথমে ৩০ কোটি ভারতবাসী এই টিকা পাবেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন। যার মধ্যে ৩ কোটি মানুষকে প্রথমেই দেওয়া হবে টিকা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show Full Article
Back to top button