World

৬৫ বছর আগে হারানো মানিব্যাগের খোঁজ মিলল সিনেমা হলে

এ পৃথিবীতে এমন অনেক কিছু ঘটে যায় যা কল্পনা করাও কঠিন। সিনেমাও হার মেনে যায় এমন সব বাস্তবের সামনে। তেমনই একটি ঘটনা হল এক মানিব্যাগের।

সিনেমা হলে মেরামতির কাজ চলছিল। সে সময় একটি দেওয়ালের পিছনে কোনও কিছু রয়েছে দেখে সন্দেহ হয় শ্রমিকদের। তাঁরা ভাল করে দেখতে গিয়ে দেখেন ওটা একটা মানিব্যাগ। সেটি কুড়িয়ে জমা দেওয়া হয় সিনেমা হলের মালিকে কাছে। তিনি মানিব্যাগ খুলে দেখেন তাতে রয়েছে একটি বহু পুরনো ফ্যামিলি ফটোগ্রাফ। এছাড়া কিছু কাগজপত্র ও কার্ড রয়েছে।

তিনি খোঁজ করতে গিয়ে দেখেন যে দেওয়ালের পিছন থেকে সেটি উদ্ধার হয় সেটি কোনও এক সময় হারানো প্রাপ্তির ঘর হিসাবে চিহ্নিত হত। আদপে সেটি ছিল সে সময় হলের ম্যানেজারের ঘর। সেখানেই হলের চত্বর থেকে কুড়িয়ে পাওয়া জিনিস জমা থাকত।

আটলান্টার ওই হলের মালিক খোঁজ শুরু করেন। কার মানিব্যাগ সেটি জানার চেষ্টা চালাতে গিয়ে তিনি জানতে পারেন ওই মানিব্যাগটি যাঁর সেই মহিলা আর বেঁচে নেই। তবে তাঁর মেয়ে রয়েছেন। তাঁর হাতেই মানিব্যাগটি তুলে দেন হল মালিক।

ওই মহিলা জানান, তাঁর মা ১৯৫৮ সালে ওই মানিব্যাগটি হারিয়ে ফেলেন। তারপর অনেক খুঁজেও সেটি আর পাননি। সেটা যে ৬৫ বছর পর এভাবে পাওয়া যাবে তা কল্পনাও করতে পারেননি তিনি।


মার্কিন রাজ্য জর্জিয়ার রাজধানী শহর আটলান্টার এই হলটি সবচেয়ে পুরনো হল। তারই মেরামতির কাজ চলার সময় মানিব্যাগটি ৬৫ বছর পর অক্ষত অবস্থায় খুঁজে পাওয়ার ঘটনা চেপে থাকেনি। তা সে দেশের তো বটেই, এমনকি বিশ্বের অনেক তাবড় সংবাদমাধ্যমের অন্যতম শিরোনামে পরিণত হয়।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button