World

ফেসবুক স্ট্যাটাসে লেখা ‘বিপত্নীক’, অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে খুনের চেষ্টা স্বামীর

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে বিদ্যুতের শক দিয়ে হত্যার ষড়যন্ত্রে শ্রীঘরে যেতে হল স্বামীকে। অভিযুক্ত স্বামী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার পাম উপকূল অঞ্চলের বাসিন্দা মাইকেল উইলসন। মাইকেলের স্ত্রী অ্যাশলে লরেন কিছুদিন আগে বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন জানিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। অ্যাশলের দাবি, মাইকেল মানসিকভাবে অসুস্থ। স্ত্রীর সেই অভিযোগ বা বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত সম্ভবত মেনে নিতে পারেনি মাইকেল। তাই স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা জানা সত্ত্বেও তাঁকে বিদ্যুতের শক দিয়ে মারার ছক কষতে বিন্দুমাত্র বিচলিত হয়নি সে।

ঘরে ঢোকার দরজার পিছনে ইলেকট্রিক তার দিয়ে রীতিমত স্ত্রী-বধের যজ্ঞকাঠ সাজিয়ে রেখেছিল মাইকেল। পুলিশ জানিয়েছে, স্ত্রীকে সেই দরজা পর্যন্ত আনতেও সক্ষমও হয় মাইকেল। সেই দরজা দিয়েই ঢোকার জন্য মাইকেলের অস্বাভাবিক জোরাজুরিতে খটকা লাগে অ্যাশলের। সাথে সাথে সে কথা নিজের বাবাকে ফোনে জানান অ্যাশলে। তাঁর বাবা সে কথা জানান পুলিশকে। পুলিশ এসে দরজায় লাঠি মারতেই খায় বিদ্যুতের ঝটকা। দরজা খুলে তারা দেখে চারদিকে পাতা বৈদ্যুতিন সরঞ্জামের মারণ-ফাঁদ। যা ছুঁলেই মৃত্যু বা গুরুতর আঘাত নিশ্চিত।

স্ত্রীকে মারার চক্রান্তে গত ২৮ ডিসেম্বর মাইকেলকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ঘটনার তদন্তে নেমে চমকে দেওয়ার মত সূত্র হাতে পান পুলিশের আধিকারিকরা। কিছুদিন আগেই ফেসবুকের স্ট্যাটাস পরিবর্তন করেছিল অভিযুক্ত মাইকেল। সেখানে লেখা ‘বিপত্নীক’। অর্থাৎ স্ত্রীকে খুনের পরিকল্পনা অনেক আগে থেকেই অভিযুক্ত করেছিল বলে অনেকটাই নিশ্চিত পুলিশ।

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button