World

বড়দিনের আগে বেনজির দুর্দশার শিকার স্লেজ টানা রেনডিয়ার

বড়দিনের আর কিছুদিন বাকি। আর বড়দিন মানেই সান্টাক্লজ, রেনডিয়ার, স্লেজ গাড়ি, উপহার, কেক। সেই রেনডিয়ার কিন্তু বড়দিনের আগেই দুর্দশার কবলে পড়ল।

বড়দিন এগিয়ে আসছে। এ এমন এক উৎসব যাতে মেতে ওঠে গোটা বিশ্ব। বছর শেষের আগে এটাই শেষ উৎসব। তারপরই বর্ষশেষের রাত। শীতের আমেজ গায়ে মেখে বড়দিনের আনন্দ উপভোগ করা অনেকের কাছেই সুখের। বড়দিনের সঙ্গে জড়িয়ে আছে কিছু নাম।

সান্টাক্লজ তো আছেই, সেই সঙ্গে বরফের ওপর দিয়ে স্লেজ গাড়িতে সান্টাকে টেনে নিয়ে যাওয়া রেনডিয়ারও রয়েছে। রয়েছে উপহারের লাল ঝুলি। রয়েছে ক্রিসমাস ট্রি। এসব দিয়ে অনেকেই বাড়ি সাজান।

ইউরোপ, আমেরিকায় বড়দিনের সাজসজ্জা শুরু হয়ে যায় অনেক আগে থেকেই। রাস্তার মোড়ে, পার্কে যেমন বড়দিনের সাজ নজর কাড়ে, তেমনই অনেকেই বাড়িকে সাজিয়ে তোলেন নানা সাজে।

এভাবেই বড়দিনে আগে বাড়ির সামনের ছোট্ট বাগানটা ৩টি রেনডিয়ারের পূর্ণাবয়ব মডেলে সাজিয়ে তুলেছিল একটি পরিবার। রেনডিয়ারগুলিকে আলো দিয়ে ভরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তারপর যা হল তার জন্য বোধহয় তারা তৈরি ছিলনা।


বাড়ির সিসিটিভি ক্যামেরায় দেখা গেছে একটি ভাল্লুক সেই বাগানে হাজির হল। তারপর সময় নষ্ট না করে ঝাঁপিয়ে পড়ল সাজানো একটি রেনডিয়ারের ওপর।

সেটিকে মাটিতে ফেলে দিয়ে, তার পাশেরটাকে আক্রমণ করল সে। সেটিকেও ঘাসের ওপর ফেলে তার গলার কাছটা কামড়ে ধরল। এবার টেনে নিয়ে যেতে থাকল। যেমন করে কোনও প্রাণি তার শিকারকে টেনে নিয়ে যায়।

বাড়ির বাসিন্দারা পরে এসব জানতে পেরে বেরিয়ে দেখেন টেনে নিয়ে যাওয়া রেনডিয়ারের মডেলটি কিছুটা ভাঙা অবস্থায় পড়ে আছে বাড়ির বাইরে রাস্তার কাছে। ভাল্লুক রেনডিয়ারগুলিকে যে সহ্য করতে পারেনি তা পরিস্কার। সে তাই সেগুলির ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। ঘটনাটি ঘটেছে ফ্লোরিডায়। যার ছবি ছড়িয়ে পড়ে ইন্টারনেটে।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button