Business

ট্যুইটারের নতুন মালিক ইলন মাস্ক, পরাগ আগরওয়ালের কি হতে পারে এবার

ট্যুইটার বিশ্বের অন্যতম ধনী ইলন মাস্কের হাতে যাওয়ার পর ট্যুইটারের সিইও পরাগ আগরওয়ালের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। কি মনে করছেন অনেকে।

ট্যুইটার নিজের দখলে নিতে আদাজল খেয়ে লেগে পড়েছিলেন ইলন মাস্ক। সফলও হয়েছেন। ২০১৩ সাল থেকে ট্যুইটার একটি পাবলিক কোম্পানি হিসাবে চলার পর অবশেষে ২০২২-এ এসে টেসলা সংস্থার মালিক ইলন মাস্ক ৪৪ বিলিয়ন ডলার খরচ করে ট্যুইটার নিজের দখলে নিলেন।

এখন প্রশ্ন হল ট্যুইটারের সিইও হওয়া ভারতীয় বংশোদ্ভূত পরাগ আগরওয়ালের কি হবে? একটি রিসার্চ সংস্থা মনে করছে পরাগ আর সিইও নাও থাকতে পারেন। তবে তাঁকে যদি নতুন মালিক বার করেও দেন তাহলেও তাঁকে একটা বড় অঙ্ক দিয়ে বার করতে হবে।

পরাগকে যে টাকা দিতে হবে তা চোখ কপালে তোলার জন্য যথেষ্ট। এমনিতেই ইলন মাস্ক ট্যুইটারের নিয়ন্ত্রণ নিজের হাতে নিলে তা ট্যুইটারের জন্য খুব একটা ভাল হবে না বলেই কর্মচারিদের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন পরাগ। এর পরেও কি তাঁকে সিইও করে রাখবেন ইলন? নাকি মোটা টাকা দিয়ে বিদায় জানাবেন? এটা এখন বড় প্রশ্ন।

পরাগ আগরওয়ালকে যদি ট্যুইটারের নতুন মালিক ১২ মাসের মধ্যে বার করে দেন তাহলে তাঁকে ৪২ মিলিয়ন ডলার দিতে হবে বলেই মনে করা হচ্ছে। যা ভারতীয় মুদ্রায় হিসাব করলে দাঁড়ায় ৩২১ কোটি ৬৭ লক্ষ টাকা!

আপাতত এই খবর গোটা বিশ্বের সংবাদমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এই বিপুল অঙ্কের বোঝা কি ইলন মাস্ক নেবেন? নাকি পরাগকেই রেখে দেবেন সিইও করে? এর উত্তর সময়ই বলে দেবে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.