National

সরস্বতী পুজোর সকালে থরথরিয়ে কেঁপে উঠল রাজধানী

সরস্বতী পুজোর সকালটা আনন্দময় হয়। সেই সকালেই আনন্দ মুছে আতঙ্ক ছড়াল। সকালে থরথর করে কেঁপে ওঠে পুরো চত্বর। অনেকে বাইরে বেরিয়ে আসেন।

শনিবার সকাল পৌনে ১০টা। রাজধানী দিল্লি খুব ব্যস্ত নয়। শনিবারের সকাল হওয়ায় অনেক জায়গায় ছুটি। এদিকে পশ্চিমবঙ্গের মত এতটা বিরাট আকারে না হলেও দিল্লির অনেক পরিবারে সরস্বতী বন্দনা হয়। কিন্তু সব ছন্দ কেটে দেয় আচমকা শুরু হওয়া কম্পন। দিল্লি কেঁপে ওঠে।

অনেকেই আতঙ্কে ঘর থেকে বেরিয়ে আসেন। ভূমিকম্প যে হচ্ছে তা বুঝতে সময় লাগেনি। এদিকে শুধু দিল্লি বলেই নয়, দিল্লি সংলগ্ন বিস্তীর্ণ এলাকা এই কম্পনের আওতায় আসে। সর্বত্রই একইভাবে আতঙ্ক ছড়ায়। বাদ যায়নি জম্মু কাশ্মীরও। সেখানেও কম্পন অনুভূত হয়েছে।

আফগানিস্তান তাজিকিস্তান সীমান্ত ছিল কম্পনের কেন্দ্রস্থল। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ধরা পড়েছে ৫.৭। ফলে কম্পনের মাত্রা নেহাত কম ছিলনা।

এই কম্পনের রেশই এসে পড়ে দিল্লি ও উত্তর ভারতে। কম্পনের উৎসস্থল ছিল ছিল মাটির ১৮১ কিলোমিটার গভীরে। কম্পনের জেরে ভারতের কোথাও কোনও ক্ষয়ক্ষতির তেমন খবর নেই। হতাহতেরও খবর নেই। তবে কম্পনের জেরে একটা আতঙ্ক ছড়ায় মানুষের মধ্যে।

ভারতের উত্তর পশ্চিম প্রান্তে যেমন কম্পন মাঝে মাঝেই অনুভূত হয়, তেমনই অনুভূত হচ্ছে ভারতের উত্তরপূর্ব দিকে। কিছুদিন আগেই ভূমিকম্পে উত্তরবঙ্গ পর্যন্ত কেঁপে উঠেছিল।

মায়ানমার ও ভারত সীমান্তে প্রায়ই কম্পন অনুভূত হচ্ছে। যা চিন্তা বাড়াচ্ছে। এমনিতেই বিশ্বের অন্যতম ভূমিকম্প প্রবণ এলাকায় ভারতের উত্তরপূর্ব ভাগ। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button