National

ঘূর্ণিঝড় তাউতে কাড়ল ২টি প্রাণ, উপড়ে গেল ১ হাজার গাছ

অতিশক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় তাউতে ক্রমশ তার শক্তি বাড়িয়েই চলেছে। সোমবার তা আছড়ে পড়ার কথা। কিন্তু তার প্রভাব পড়তে শুরু করেছে কোঙ্কণ উপকূলে।

শক্তি বাড়িয়েই চলেছে তাউতে। এখনও তা আরবসাগরের ওপরই অবস্থান করছে। আগামী কিছু ঘণ্টায় তা আরও শক্তি বাড়িয়ে ফেলবে বলেই মনে করছে আবহাওয়া দফতর।

এখনও ঘূর্ণিঝড়টি স্থলভাগে আছড়ে পড়েনি। গুজরাটের পোরবন্দরের কাছ দিয়ে তার স্থলভাগে প্রবেশের কথা সোমবার বিকেলে। কিন্তু তার আগেই তার তাণ্ডবলীলা শুরু হয়ে গিয়েছে।

রবিবার সকাল থেকেই কেরালা উপকূলে প্রবল জলোচ্ছ্বাস শুরু হয়। সঙ্গে বৃষ্টি ও ঝড়। ঝড়ে বেশ কয়েকটি বাড়ি ভেঙে পড়ে। কেরালায় মৃত্যুর খবরও মিলেছে। উপড়ে যায় প্রচুর গাছ। কর্ণাটকেও উপকূলীয় এলাকায় প্রবল ঝাপটা দেয় তাউতে।

গোয়ায় তাউতের প্রভাব ভয়ংকরভাবে পড়েছে। গোয়ার সমুদ্রের ধারে যাওয়াই যাচ্ছেনা। সেখানে প্রবল ঝড়ে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। সঠিক হিসাব না পাওয়া গেলেও উপড়ে পড়া গাছের সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে। সঙ্গে চলছে বৃষ্টি।

এদিকে তাউতের তাণ্ডব সামাল দিতে ইতিমধ্যেই তৈরি গুজরাট সরকার। তৈরি রাখা হয়েছে এনডিআরএফ ও বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরকে। উপকূলীয় এলাকা থেকে বহু মানুষকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

মহারাষ্ট্রেও উপকূল জুড়ে সতর্কতা নিয়েছে রাজ্যসরকার। সেখানেও এনডিআরএফ-কে তৈরি রাখা হয়েছে। খোদ মুম্বই শহরও এই ঝড়ের তাণ্ডবে পড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button