Sports

গায়ে ট্যাটু থাকলে জাতীয় দলে জায়গা নেই, ঘুম উড়ল ফুটবলারদের

গায়ে ট্যাটু আঁকা এখন চলতি ফ্যাশন। খেলোয়াড়দের মধ্যে এই প্রবণতা যথেষ্ট। কিন্তু সেই ট্যাটু এঁকে যদি জাতীয় দলেই জায়গা না হয় তাহলে তো মুশকিল।

গায়ে ট্যাটু আঁকা এখন ফ্যাশন হয়ে দাঁড়িয়েছে। সেলেব্রিটি থেকে সাধারণ মানুষ, অনেকের গায়েই ট্যাটু দেখা যায়। অনেক খেলোয়াড়ও গায়ে ট্যাটু করান।

ভারতে ক্রিকেটারদের অনেকের শরীরেই এখন ট্যাটু আঁকা থাকে। ফুটবলারদের ক্ষেত্রেও ট্যাটু যথেষ্ট পরিচিত দৃশ্য। ফুটবল মহাতারকা মেসি বা রোনাল্ডোদের গায়েও এখন ট্যাটুর ছোঁয়া।

চিনা ফুটবল দলের অনেক খেলোয়াড়ের গায়েও ট্যাটু রয়েছে। কিন্তু চিনের জাতীয় ফুটবল দল ও অনূর্ধ্ব ২৩ ফুটবল দলের জন্য যে খেলোয়াড় নির্বাচন কমিটি রয়েছে তাদের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যদি কারও গায়ে ট্যাটু থাকে তবে তাকে জাতীয় দলে বা অনূর্ধ্ব ২৩ দলে শামিল করা হবে না।

২০১৮ সালেই চিনে এমন ফতোয়া জারি হয়েছিল। ফুটবলাররা তারপর থেকে গায়ে ট্যাটু থাকলেও তা কাপড়ে ঢেকে খেলছিলেন। এখন সেটাও আর করা যাবেনা।

নির্বচন কমিটি সাফ জানিয়ে দিয়েছে গায়ে ট্যাটু থেকে থাকলে তা তুলে ফেলতে হবে, তবেই জাতীয় দলে জায়গা পাওয়া যাবে।

এদিকে অনেক ট্যাটু হয় যা জোর করে তুলতে গেলে তা অত্যন্ত যন্ত্রণাদায়ক হয়। কিন্তু কিছু এখন আর করার নেই। দ্রুত ট্যাটু মুক্ত শরীর না করে ফেলতে পারলে জাতীয় দলে খেলার সুযোগ হাতছাড়া হবে ফুটবলারদের। এমনকি অনুশীলনে আসতে গেলেও গায়ে ট্যাটু থাকা যাবেনা। প্রসঙ্গত চিনে গায়ে উল্কি বা ট্যাটু করাকে ঘৃণার চোখে দেখা হয়। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.