World

দোলের আগে হলুদে মুখ ঢাকল বেজিং

আকাশে যেন কেউ হলুদ রঙ ছড়িয়ে দিয়েছে। তবে এ রঙয়ে দোলের আনন্দ নেই। আছে ভয়। আপাতত সেই ভীতিই পিছু তাড়া করছে বেজিংকে।

বেজিং : চিনের আকাশে সম্প্রতি কেউ যেন মুঠো মুঠো হলুদ রঙ ছড়িয়ে দিয়েছিল। যেদিকেই চোখ যাচ্ছে শুধু হলুদ আর হলুদ। না দোল বা কোনও রঙিন উৎসব নয়। এই হলুদের চোটে ঘরবন্দি হওয়ার জোগাড় হয় চিনের নাগরিকদের।

আসলে এটা হল বালির ঝড়। হলুদ বালিতে ঢেকে যায় উত্তর চিনের অধিকাংশ শহর। সঙ্গে ছিল দূষণের যুগলবন্দি। দেশের রাজধানী শহর বেজিং-এও ঝড়ের ব্যাপক প্রভাব পড়ে। এজন্য হলুদ সতর্কতাও জারি করতে হয়। হালে হওয়া এমন ঝড়ে চিনের একটা বড় অংশ গৃহবন্দি হয়ে পড়ে।

অনুমান করা হচ্ছে ধুলো ও বালি ঠান্ডা ও ভারী বাতাসের সাথে মিশে আরও গভীর ঝড়ের সৃষ্টি করে বয়ে যাবে জিনজিয়াং, মঙ্গোলিয়ার অভ্যন্তর, হেইলংজিয়াং, জিলিন, লিয়াওনিং, গানসু, নিংজিয়া, শানসি, শানজি, হেবেই, বেজিং ও তিয়ানজিং-এর বিস্তীর্ণ অঞ্চলের ওপর দিয়ে। মঙ্গোলিয়ার অভ্যন্তরের বেশ কিছু অঞ্চলের ওপরও এর প্রভাব পড়বে।

চিনে দূষণকে কেন্দ্র করে কখনও চারধার হলুদে ভরে যাওয়া তো কখনও ধূসর রং নেওয়া, এমনটা হয়েই থাকে। প্রবল দূষণকে এজন্য দায়ী করেন আবহবিদেরা।

গাড়ির চালকদের রাস্তায় কম দৃশ্যমানতার জন্য গাড়ি চালানোর ক্ষেত্রে বিশেষ সতর্কতা নিতে হয়। চিনে দূষণ থেকে বাঁচতে করোনা পরিস্থিতির অনেক আগে থেকেই মাস্ক ব্যবহার শুরু করেন বহু মানুষ। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More
Back to top button