World

দোকানদার বলেছিল তোমার কেনার ক্ষমতা নেই, অপমানে যে কাণ্ড করলেন যুবক

এক চাউমিনের দোকানে দাম নিয়ে কথা কাটাকাটি হওয়ায় দোকানদার ক্রেতাকে বলেন এখান থেকে যাও, তোমার কেনার ক্ষমতা নেই। এই অপমানে এক কাণ্ড করলেন যুবক।

রাস্তার ধারের নুডলস, চাউমিনের দোকানে অনেকেই তো দাঁড়িয়ে পড়েন। জিভে জল আনা চাউমিনে রসনা তৃপ্তি করে নেন। আর এসব চাউমিনের দোকানে অপেক্ষাকৃত যুবা বয়সের ছেলে মেয়ের ভিড় সবচেয়ে বেশি হয়। এমনই এক যুবক হাজির হয়েছিলেন এক চাউমিনের দোকানে। জিজ্ঞেস করেছিলেন দাম।

দাম শুনে যুবকের মনে হয় অনেক বেশি টাকা চাইছেন দোকানদার। যুবক পাল্টা জিজ্ঞেস করেন, এত যে দাম চাইছেন তো চাউমিনে কি কি দিচ্ছেন ওই দোকানি। ডিম ও ২ ধরনের সবজি দেওয়া হচ্ছে বলায় আরও তেতে ওঠেন যুবক।

যুবক বলেন, এটুকু দেওয়ার বিনিময়ে এত দাম চাওয়া হচ্ছে কেন? এবার দোকানদারের সঙ্গে থাকা তাঁর ছেলে ওই যুবককে রেগে বলেন, যুবকের দ্বারা এত খরচ করা সম্ভব নয়। তাই তিনি যেন দোকানের সামনে থেকে চলে যান।

এতেই রেগে আগুন হয়ে যান যুবক। তিনি এবার বলেন তিনি দোকানে যা আছে সব কিনে নেবেন। দোকানের সব খাবারের দাম বাবদ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১০ হাজার টাকা দোকানদারের হাতে গুঁজে দিয়ে তিনি এবার দোকানের নুডলসের প্যাকেট, সবজি, ডিম, মশলা সব রাস্তায় ফেলে দিতে থাকেন।


দোকানদারকে যুবক বলেন, যা তিনি কিনেছেন তা যেমন খুশি ফেলে দেওয়ার অধিকারও তাঁর আছে। অনেকেই একে নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গের প্রবাদের সঙ্গে তুলনা করছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে চিনের স্যানডং প্রদেশে। যা বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় ছাপা হয়েছে। সমাজ মাধ্যমেও প্রকাশিত হয়েছে এই কাহিনি।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button