World

বিশ্বের সবচেয়ে বুড়ো গাছের বয়স প্রায় ৫ হাজার বছর

বিশ্বের সবচেয়ে পুরনো গাছের বয়স শুনে যে কেউ চমকে যেতে পারেন। প্রায় ৫ হাজার বছর বয়স সে গাছের। তবে ঠিক কোথায় তা সকলকে জানতে দেওয়া হয়না।

অনেক গাছেরই বয়স শতবর্ষ পার করে। কয়েকশো বছর বয়সের গাছও আছে। কিন্তু একটা গাছের বয়স প্রায় ৫ হাজার বছর শুনে যে কেউ থমকে যাবেন। ৪ হাজার ৮৫৫ বছর ধরে এ গাছ বেঁচে আছে। তার সামনেই বদলে গেছে গোটা দুনিয়া। বদলে গেছে আবহাওয়ার চরিত্র।

রোদ, জল, বৃষ্টির চরম প্রভাবও পড়েছে তার ওপর। সেসব সহ্য করেও সে আজও অটল। গ্রেট বেসিন ব্রিস্টলকোন পাইন নামে এ গাছের ডাকনাম মেথুসেলা। এ গাছ সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১০ হাজার ফুট উঁচুতে হয়।

হোয়াইট মাউন্টেনে এই গাছ পাওয়া গেলেও, ঠিক কোনখানে এটি পাওয়া যায় তা কাউকে জানানো হয়না। এই অতিবৃদ্ধকে রক্ষা করতেই এই পরিকল্পনা। তবে এ গাছ আর শুধু একটি গাছ নেই। তা এখন এক রূপকথার শামিল।

১৯৫৭ সালে এই গাছের প্রথম খোঁজ মেলে। তারপরই তার বয়স খতিয়ে দেখতে গিয়ে বিজ্ঞানীরাও হতবাক হয়ে যান। মেসোপটেমিয়ায় তখন সেমিটিক ভাষা বলা শুরু হয়েছে। যাকে অন্যতম প্রাচীন ভাষা বলা হয়ে থাকে।


সেই সময় জন্ম নিয়ে আজ এই রোবটিক্সের যুগেও সে বহাল তবিয়তে বেঁচে আছে। এ এক আশ্চর্য বলেই মেনে নেন সকলে। সকলেই চান এ গাছ আরও বহু বছর বেঁচে থাকুক। এক জীবন্ত ইতিহাস হয়ে বেঁচে থাকুক এই অতিবৃদ্ধ গাছ।

Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button