World

হাঙরের পেটে গেলেন যুবক

জলে এখন খুব কম মানুষই নামছেন। কিছু বিচ অবশ্য খোলা। সেখানেই একটি বিচে হাঙরের পেটে গেলেন এক যুবক।

লকডাউনের জেরে সমুদ্রসৈকতগুলো এখন জনশূন্য। ফলে সৈকতের কাছাকাছি চলে আসছে অনেক সামুদ্রিক প্রাণি। অনেক বিরল প্রজাতির প্রাণিও নজর কাড়ছে সেখানে। যেসব সামুদ্রিক প্রাণি ব্যস্ত সমুদ্রসৈকতগুলির ধারেকাছে ঘেঁষত না সেগুলিই এখন ধূধূ বালুকাবেলার কাছাকাছি দিব্যি ঘুরছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি। তারমধ্যেই ক্যালিফোর্নিয়ার মনরেসা স্টেট বিচে নীল সমুদ্রে সার্ফিং করছিলেন এক ২৬ বছরের যুবক। ঢেউয়ের তালে তালে ভেসে বেড়াচ্ছিলেন তিনি। আর ঠিক তখনই জলে উঁকি দেয় এক অচেনা চেহারা।

স্থানীয় প্রশাসন জানাচ্ছে যে ওই যুবক গত শনিবার দুপুর দেড়টা নাগাদ জলে ভেসে বেড়াচ্ছিলেন। তখনই দেখা দেয় হাঙরটি। বিরল প্রজাতির হাঙর ছিল সেটি। এমন হাঙর বড় একটা দেখা যায়না। সেই হাঙরের শিকার হন ওই যুবক। স্থানীয় প্রশাসন ওই যুবকের হাঙরের হানায় মৃত্যু নিশ্চিত করেছে। এমন হাঙর সমুদ্রসৈকতের এত কাছে দেখা যায়না বলে স্থানীয়দের দাবি। এরপরই ওই সমুদ্রসৈকত বন্ধ করে দেয় প্রশাসন।

এমন ঘটনা ঘটলে নিয়ম হল শুধু ওই বিচ বলেই নয়, তার চারধারে সমুদ্রের ধারের দেড় কিলোমিটারের ওপর এলাকা ফাঁকা করে দেওয়া। সেখানে কারও প্রবেশ নিষেধ। সেই নিষেধাজ্ঞা লাগু করা হয়েছে। ওই বিচটিকে আগামী ৫ দিনের জন্য বন্ধ রাখা হয়েছে। খতিয়ান বলছে ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রশান্তমহাসাগরের ওপর যে কটি বিচ রয়েছে সেখানে ২০০০ সালের পর থেকে নানা সময়ে হাঙর হানার ঘটনা ঘটেছে। এবার দেখা গেল একটি বিরল প্রজাতির হাঙরকে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা


Show Full Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button