Business

এখানে বেড়াতে গেলে ভুলেও সঙ্গে নেওয়া যাবেনা ২ ধরনের কয়েন

দেশের তথা বাঙালির অন্যতম প্রধান ভ্রমণক্ষেত্রে গেলে সঙ্গে নেওয়া যাবেনা ১০ টাকার কয়েন ও ১ টাকার ছোট কয়েন। এ ২টি সঙ্গে থাকলে বিপদ।

ভারতে যে প্রধান তীর্থক্ষেত্রগুলি রয়েছে তার একটি অবশ্যই বৃন্দাবন। রাধাকৃষ্ণের লীলাক্ষেত্র যমুনা পারের এই শহরে সারা বছরই ভক্তের ঢল নামে। প্রান্তিক মানুষজন থেকে ধনী, সকলেই হাজির হন ব্রজভূমির এই তীর্থ দর্শনে।

কেউ বাঁকে বিহারীর মন্দির, যমুনার ধার, ইসকনের মন্দির বা অন্যান্য দ্রষ্টব্য স্থান দর্শন করে দিনে দিনে ফিরে যান, কেউ আবার কয়েকটা দিন কাটিয়ে যান বৃন্দাবনকে খুব কাছ থেকে চিনতে, জানতে। বৃন্দাবনের খুঁটিনাটি ইতিহাস চাক্ষুষ করতে।

বৃন্দাবনে এসে এভাবে ঘোরা যেতেই পারে, তবে মুশকিল একটাই। এখানে ২ ধরনের কয়েন ভুলেও সঙ্গে রাখা যায়না। কারণ কোনও দোকানে এই কয়েন চলবে না।

মনে হতেই পারে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক যেখানে এই কয়েনকে মান্যতা দিয়েছে তখন তা বিনিময় মাধ্যম হিসাবে নিতে তো বাধ্য সকলে। বৃন্দাবনে কিন্তু দোকানদারা সকলকে সাফ জানিয়ে দেন ওই কয়েন তাঁরা নিতে পারবেননা, কারণ তিনি নিলেও অন্য কেউ তাঁর কাছ থেকে সেগুলি নেবেন না।

সবিনয়ে এভাবেই কিন্তু ছোট ১ টাকার কয়েন এবং ১০ টাকার কয়েন নেওয়া এড়িয়ে যাবেন বাজার, দোকানের বিক্রেতারা। ফলে এই ২টি কয়েন বৃন্দাবনে অলিখিতভাবে অচল। তবে একটি জায়গায় এই কয়েন চলতে পারে।

বৃন্দাবনে গিয়ে যদি কেউ মন্দিরে যান এবং সেখানে ১০ টাকার কয়েন বা ১ টাকার ছোট কয়েন প্রণামী দিতে চান তাহলে তা গ্রহণ করা হয়।

Vrindavan
বৃন্দাবন, নিজস্ব চিত্র

তাই বৃন্দাবনে ঘুরতে গিয়ে পকেটে ১০ টাকার কয়েন বা ছোট ১ টাকার কয়েন নিয়ে কিছু কিনতে যাওয়া মুশকিলে ফেলতে পারে যে কাউকে। — তথ্য ও চিত্র – কামাখ্যাপ্রসাদ লাহা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.