Business

রাশিয়া ইউক্রেনের যুদ্ধ লাগলে এ দেশের ছাপোষা মধ্যবিত্তের মাথায় হাত

রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধ সম্ভাবনা নিয়ে আশঙ্কায় গোটা বিশ্ব। কিন্তু এসব থেকে অনেক দূরে থাকা এ দেশের সাধারণ মধ্যবিত্তের যুদ্ধ লাগলে কিন্তু মহাবিপদ।

রাশিয়ার সেনা ইউক্রেন সীমান্তে দাঁড়িয়ে রয়েছে। ইউক্রেন সেনাও সে দেশের অভ্যন্তরে ছড়িয়ে পড়ছে। একটা দমবন্ধ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। সব দেশ তাদের নাগরিক যাঁরা ইউক্রেনে ছিলেন তাঁদের ফিরিয়ে এনেছে। ভারতও সেই একই পথে হেঁটেছে।

রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধ বিশ্বজুড়ে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরিস্থিতি তৈরি করতে পারে বলেও আশঙ্কা করছেন অনেকে। আমেরিকা নজর রাখছে পুরো বিষয়টিতে। ন্যাটোও তাই।

এত বড় আন্তর্জাতিক বিষয়ের মধ্যে কিন্তু ঢুকে পড়েছেন ভারতের ছাপোষা মধ্যবিত্তও। তাঁরা চাইছেন রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে যেন যুদ্ধ না লাগে। কিন্তু রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধ লাগলে এ দেশের সাধারণ মধ্যবিত্তের কি, তা মনে হতেই পারে।

সুদূর ইউক্রেনে রাশিয়া হানা দিলে সরাসরি ভারতীয় মধ্যবিত্তের সমস্যা হওয়ার কথা নয়। কিন্তু হচ্ছে। কারণ তাঁদের হেঁশেলে সূর্যমুখীর তেল দিয়ে নানা পদ তৈরি হয়। হেঁয়ালি মনে হলেও এটাই সত্যি।

ভারতে সূর্যমুখী তেল প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলিও চাইছে না যুদ্ধ বাধুক। কেননা যুদ্ধ যদি সত্যিই হয় তাহলে ইউক্রেন থেকে সূর্যমুখী তেলের আমদানি বন্ধ হবে। যা ভারতে সূর্যমুখী তেলের দামে আগুন ধরিয়ে দেবে।

এমনিতেই সাদা তেলের দাম এখনও চড়াই। সূর্যমুখী তেল এখন লিটার প্রতি ১৫০ থেকে ১৭৫ টাকার মধ্যে ঘোরাফেরা করছে। কিন্তু রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা চালালে সেই দাম যে কোথায় গিয়ে ঠেকবে তা পরিস্কার করে বলতে পারছেন না কেউই। ফলে সিঁটিয়ে আছেন এ দেশের মধ্যবিত্তরা। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.