Business

ব্যবসা হচ্ছেনা, ৪৫ টাকা কেজি দরে বাস বেচে দিচ্ছেন বাস মালিক

ব্যবসা প্রায় নেই বললেই চলে। তারওপর ক্রমশ বাড়ছে খরচের বোঝা। এই অবস্থায় নিরুপায় হয়ে ৪৫ টাকা কেজি দরে নিজের বাস বেচে দিচ্ছেন এক বাস মালিক।

পর্যটন শিল্পের বেহাল দশা ক্রমশ প্রকট হয়ে উঠছে। গত ২ বছরে এমনিতেই পর্যটন লাটে উঠেছে। ফলে যে বাস মালিকরা বিলাসবহুল বাসে করে পর্যটকদের বিভিন্ন পর্যটনস্থল ঘুরিয়ে দেখানোর পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত তাঁদের মাথায় হাত পড়েছে। পরিবার নিয়ে বেঁচে থাকাই দায় হয়ে উঠছে তাঁদের কাছে।

তার ওপর বাস পুষতে গেলে তার বাৎসরিক বীমার প্রিমিয়াম, বাৎসরিক সরকারি করের টাকা প্রদানের ভার বহন করতে হচ্ছে। কিন্তু তলানিতে ঠেকা রোজগারে তা দিতে পারাই দায় হয়ে উঠেছে। ফলে কার্যত নিরুপায় হয়ে তাঁর বাসগুলি বেচে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এক বাস মালিক।

২ বছর আগে তাঁর রমরমা ব্যবসা ছিল। ছোট বড় বিলাসবহুল বাস মিলিয়ে ছিল ২০টি। তার মধ্যে এখন ১০টি রয়ে গেছে। বাকি বিক্রি হয়ে গেছে।

এখন হাতে থাকা ১০টি বাসও বেচে দিতে চাইছেন তিনি। কেজি দরে বাসগুলি বেচে দিতে চাইছেন কেরালার কোচি শহরের পর্যটন বাস মালিক রয়সন জোসেফ। ৪৫ টাকা কেজি দরে তাঁর বাসগুলি তিনি বেচে দিতে চাইছেন। ৪৫ টাকা কেজি দর দিয়েছেন তিনি।

এই ঘটনা একটা উদাহরণ মাত্র। এমনই পরিস্থিতি কেরালায় পর্যটন শিল্পের সঙ্গে যুক্ত বাস মালিকদের। তাঁদের বেহাল দশার জন্য সরকারি সাহায্যও প্রার্থনা করেছেন তাঁরা।

পর্যটন শিল্পের সঙ্গে যুক্ত বাস মালিক সংগঠন অবিলম্বে রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের সাহায্য চেয়েছে। যাতে এই শিল্প আগামী দিনে বেঁচে থাকতে পারে। — সংবাদ সংস্থার সাহায্য নিয়ে লেখা

Show More

Leave a Reply

Your email address will not be published.